kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুখোমুখি প্রতিদিন

মেয়েরা ভালো করছে, আমরা পারছি না

ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে চায় হ্যান্ডবল খেলোয়াড়রা। ফাইনালে উঠলেও তাদের লক্ষ্য পূরণ। ছেলেদের দলের প্রস্তুতি ও সেই প্রত্যাশা নিয়ে কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে কথা বলেছেন অধিনায়ক ইমরান হোসেন

৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



মেয়েরা ভালো করছে, আমরা পারছি না

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : মাত্র দুই সপ্তাহের প্রস্তুতি আপনাদের, দেশের মাটিতে এমন আন্তর্জাতিক আসরে এটি কি যথেষ্ট?

ইমরান হোসেন : প্রস্তুতির ব্যাপারটা ম্যানেজমেন্টই দেখেছে। তবে আমরা নিজেদের দুর্বল ভাবছি না।

কারণ খেলোয়াড়দের বেশির ভাগই খেলার মধ্যে ছিল। আমাদের লিগ হয়ে গেছে কিছুদিন আগে। ক্যাম্প না থাকলেও আমরা তাই অনুশীলনের মধ্যেই ছিলাম। তা ছাড়া গত এসএ গেমসে খেলা বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আছে এই দলে। আমিও ছিলাম এসএ গেমসে। যে কারণে প্রস্তুতির ঘাটতি নিয়ে আমরা খুব বেশি ভাবছি না।

প্রশ্ন : কোচ ফাইনালের লক্ষ্যের কথা বলেছেন, গত এসএ গেমসে সেটা আপনারা পারেননি—এবার কি সম্ভব?

ইমরান : দেশের মাটিতে যেহেতু খেলা, অসম্ভব না। ক্যাম্পে যে কয়দিনই আমরা অনুশীলন করেছি সবার পারফরম্যান্সই বেশ ভালো ছিল তাতে।

প্রশ্ন : ফাইনালে খেলতে হলে পাকিস্তানকে হারাতে হবে, ভারতকে যদি ফেভারিট ধরা হয়...

ইমরান : হ্যাঁ, ভারতই ফেভারিট। গত এসএ গেমসেও ওরা সোনা জিতেছে। আশা করি, পাকিস্তানকে হারিয়েই আমরা ওদের বিপক্ষে ফাইনাল খেলব এবার।

প্রশ্ন : এসএ গেমস ছাড়া আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে আপনার আর কোনো অভিজ্ঞতা?

ইমরান : আমি ২০১২ সাল থেকে খেলছি আইএইচএফ টুর্নামেন্ট। এটা আমার তৃতীয় আসর। সিনিয়র দলে এখন আমি নিয়মিত।

প্রশ্ন : গতবার মেয়েরা পাকিস্তানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল, এটা কি অনুপ্রেরণা হতে পারে ছেলেদের জন্য?

ইমরান : তা তো অবশ্যই। মেয়েরা লাগাতার রেজাল্ট করে যাচ্ছে, আমাদের হচ্ছে না। আমরাও তো চাই এমনটা। এএইচএফ ট্রফিতে তিনবারই আমরা তৃতীয় হয়েছি। এবার দেশের মাটিতে আমরা ভালো কিছুই করতে চাই।

প্রশ্ন : দেশের মাটিতে তো আপনার কোনো আন্তর্জাতিক আসরে খেলার অভিজ্ঞতা নেই...

ইমরান : না দেশের মাটিতে জাতীয় দলের হয়ে খেলতে নামছি এই প্রথম।

প্রশ্ন : কেমন অনুভূতি হচ্ছে তাতে?

ইমরান : অবশ্যই কিছু একটা করার চিন্তা এখন মন থেকেই আসছে। ঘরের মাঠের দর্শকদের সামনে খেলব জাতীয় দলের জার্সি গায়ে, এর রোমাঞ্চই আলাদা।

প্রশ্ন : দুুটি ভেন্যুতে খেলা হবে, হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে। সেখানে খেলে তো আপনারা অভ্যস্ত না, সমস্যা হবে না?

ইমরান : বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ম্যাট বসানো হয়েছে। আমাদের হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে যে ম্যাটটি ছিল সেটিই। আর হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে বসানো হয়েছে নতুন ম্যাট। দুই জায়গাতেই অনুশীলন হচ্ছে, তাই সমস্যা হবে না আশা করি।


মন্তব্য