kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মেসি ছাড়াই দুর্গ জয় বার্সার, হেরেছে বায়ার্ন

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মেসি ছাড়াই দুর্গ জয় বার্সার, হেরেছে বায়ার্ন

জার্মানির মাঠগুলো কঠিন দুর্গ হয়ে উঠেছিল বার্সেলোনার। সর্বশেষ ছয় ম্যাচে সেখানে মাত্র একটি জয় কাতালানদের।

বায়ার্নের কাছে ৪-০ গোলে হারের ক্ষত এখনো দগদগে। তবে প্রাণভোমরা লিওনেল মেসিকে ছাড়াই এবার দুর্গম সেই দুর্গ জয় করেছে বার্সা। গত পরশু চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও বরুশিয়া মনশেনগ্ল্যাডবাখকে ২-১ গোলে হারিয়েছে লুই এনরিকের দল। জার্মান আরেক পরাশক্তি বায়ার্ন মিউনিখ নতুন মৌসুমে টানা আট জয়ের পর হারের তেতো স্বাদ পেয়েছে স্পেনেরই অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের কাছে। হোঁচট খেয়েছে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিও। সেই ষাটের দশকের পর প্রথম ইংলিশ ক্লাব হিসেবে মৌসুমের শুরুতে টানা ১০ জয় পাওয়া ম্যানসিটি ৩-৩ গোলে ড্র করেছে সেল্টিকের সঙ্গে। অন্য ম্যাচে আর্সেনাল ২-০ গোলে বাসেলকে, নাপোলি ৪-২ গোলে বেনফিকাকে ও পিএসজি ৩-১ গোলে হারায় লুদোগোরেৎসকে। রোস্তভ, পিএসভি ২-২ গোলে আর বেসিকতাস, ডায়নামো কিয়েভের ম্যাচ শেষ হয় ১-১ সমতায়।

গ্রুপ ‘সি’তে সেল্টিককে ৭-০ গোলে বিধ্বস্ত করা বার্সার বিপক্ষে পেনাল্টি হতে পারত পঞ্চম মিনিটেই। এডেন হ্যাজার্ডের ভাই থোরগান হ্যাজার্ডের ক্রস ডি বক্সে জেরার্দ পিকের হাতে লাগলেও এড়িয়ে যায় রেফারির চোখ। এর দুই মিনিট পর ডি বক্সের ভেতরে বল পাওয়া নেইমার নষ্ট করেন একটি সুযোগ। ১১ মিনিটে লুই সুয়ারেসের করা ভলি বাঁক নিয়ে যায় পোস্টের বাইরে! তবে ৩৪ মিনিটে প্রতিআক্রমণে হ্যাজার্ডের গোলে এগিয়ে যায় মনশেনগ্ল্যাডবাখ। মাঝমাঠে সের্হিয়ো বুশকেৎস বলের নিয়ন্ত্রণ হারানোর পর মাহমুদ দাহুদ বল বাড়ান ব্রাজিলিয়ান রাফায়েলকে। তাঁর নিচু ক্রস থেকে বল পেয়ে গোলরক্ষক তের স্তেগানকে পরাস্ত করেন হ্যাজার্ড। দুই বছর আগে এই মনশেনগ্ল্যাডবাখ থেকেই বার্সায় যোগ দিয়েছিলেন স্তেগান। ৬৫ মিনিটে সমতা ফেরায় বার্সেলোনা। নেইমারের বাড়ানো পাসে নেওয়া জোরালো ভলিতে লক্ষ্য ভেদ করেন আরদা তুরান। ৭৪ মিনিটে জেরার্দ পিকের সুযোগসন্ধানী গোলে ২-১ ব্যবধানের জয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। নেইমারের কর্নারে নেওয়া সুয়ারেসের শট গোলরক্ষক ঠেকালেও ফিরতি বল জালে জড়ান পিকে।

সেল্টিক পার্কে ৬ গোলের রোমাঞ্চ শেষ হয় সেল্টিক, ম্যানসিটির ৩-৩ সমতায়। তিন তিনবার পিছিয়েও ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংলিশ লিগের শীর্ষে থাকা গার্দিওলার দল। তৃতীয় মিনিটে মুসা দেম্বেলের গোলে এগিয়ে যায় সেল্টিক। ১১ মিনিটে কোলারভের শট বক্সে পেয়ে সমতা ফেরান ফের্নান্দিনিয়ো। ২০ মিনিটে নিজেদের জালেই রহিম স্টারলিং বল জড়ালে এগিয়ে যায় সেল্টিক। সেই স্টারলিংই ২৮ মিনিটে দাভিদ সিলভার ডিফেন্স চেরা পাসে ফেরান ২-২ সমতা। ৪৭ মিনিটে দেম্বেলের দ্বিতীয় গোলে আবারও এগিয়ে যায় সেল্টিক। তবে ৫৫ মিনিটে স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড নলিতো সমতা ফেরানোর পর রোমাঞ্চকর ম্যাচটিতে আর গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। ম্যাচটি জিতলে মৌসুমের শুরুতে ইংলিশ দলগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ টানা ১১ জয়ের টটেনহামের রেকর্ড স্পর্শ করতেন গার্দিওলা।

গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে অ্যাতলেতিকোর কাছে বিদায় নেওয়া বায়ার্ন গত পরশু ১-০ গোলে হারল গ্রুপ পর্বেও। ভিসেন্তে কালদেরনে ২২ মিনিটে ফের্নান্দো তরেসের হেড ফিরে আসে পোস্টে লেগে। তবে ৩৫ মিনিটে আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানের কাছ থেকে বল পেয়ে বেলজিয়ান তারকা ইয়ানিক কারাসকো কাঙ্ক্ষিত গোল এনে দেন ডিয়েগো সিমিওনের দলকে। শেষ দিকে গ্রিয়েজমান পেনাল্টি মিস না করলে ২-০ গোলেও হারতে পারত কার্লোস আনচেলোত্তির দল। আর্তুরো ভিদাল বক্সে লুইসকে ফাউল করায় পেনাল্টি পেয়েছিল অ্যাতলেতিকো।

গ্রুপ ‘এ’তে থিও ওয়ালকটের জোড়া গোলে বাসেলকে ২-০ গোলে হারায় আর্সেনাল। গ্রুপের অপর ম্যাচে এদিনসন কাভানির দুই আর ব্লেইস মাতাউদির এক গোলে লুদোগোরেৎস রাজগ্রাদকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছে ফরাসি চ্যাম্পিয়ন পিএসজি। গ্রুপ ‘বি’তে নাপোলি টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে বেনফিকাকে ৪-২ গোলে হারিয়ে। ইতালিয়ান দলটির হয়ে দিরিস মার্তিন দুটি আর একটি করে গোল মারেক হামসিক ও আরকাদিউস মিলিকের। এএফপি


মন্তব্য