kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বড় জয়ে উদযাপন ভারতের

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বড় জয়ে উদযাপন ভারতের

৪৩৪ রানের লক্ষ্যটা ছিল দুর্গম গিরি। কানপুরের ভাঙা উইকেটে লক্ষ্যে পৌঁছতে রূপকথার মতো কিছু করতে হতো তাই।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ঘূর্ণিতে হয়নি সেটা। বরং গতকাল শেষ দিন মধ্যাহ্ন বিরতির ৪৩ মিনিট পরই ২৩৬ রানে গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। ঐতিহাসিক ৫০০তম টেস্টটা ভারত উদ্যাপন করল ১৯৭ রানের বড় জয়ে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ আর ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে জয়ের অন্যতম নায়ক অশ্বিন। তবে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটা উঠেছে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে। দুই ইনিংসে ৪২ ও ৫০ রানে অপরাজিত থাকার পাশাপাশি ম্যাচে ৬ উইকেট যে তাঁর। জয়ের কৃতিত্বটা অবশ্য অশ্বিন, জাদেজার পাশাপাশি পুরো দলকেই ভাগ করে দিয়েছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

চতুর্থ দিন ৯৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। তবে গতকাল প্রথম এক ঘণ্টা উইকেট হারায়নি তারা। ধৈর্যের প্রতিমূর্তি হয়ে পঞ্চম উইকেটে ১০২ রানের জুটি গড়েন লুকে রঞ্চি ও মিচেল স্যান্টনার। শেষ পর্যন্ত জাদেজার ঘূর্ণিতে ভাঙে প্রতিরোধ। মিড অফে অশ্বিনের তালুবন্দি হয়ে ফেরেন ১৩৮ মিনিট ক্রিজে থাকা রঞ্চি। ইনিংসের সর্বোচ্চ ৮০ রান আসে তাঁর ব্যাট থেকে। তবে স্যান্টনার ক্রিজে কাটিয়েছেন সবচেয়ে বেশি সময়। প্রথম ইনিংসে ১০৭ আর দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছেন ১৭৯ বল। অশ্বিনের বলে তিনি আউট হয়েছেন ৭১ করে। পাশাপাশি ৫৫.২ ওভার বোলিং করে স্যান্টনার ম্যাচে নেন ৫ উইকেট। তাঁর মতো আর কেউ প্রতিরোধের দেয়াল গড়তে পারলে কানপুরে হয়তো এভাবে হারতে হতো না কিউইদের। ক্রিকইনফো

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত : ৩১৮ ও ১০৭.২ ওভারে ৩৭৭/৫ ডিক্লে.।

নিউজিল্যান্ড : ২৬২ ও ৮৭.৩ ওভারে ২৩৬ (রঞ্চি ৮০, স্যান্টনার ৭১, উইলিয়ামসন ২৫, সোধি ১৭; অশ্বিন ৬/১৩২, সামি ২/১৮)।

ফল : ভারত ১৯৭ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : রবীন্দ্র জাদেজা।


মন্তব্য