kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ডর্টমুন্ডের দুর্গ ভাঙতে পারবে রিয়াল?

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ডর্টমুন্ডের দুর্গ ভাঙতে পারবে রিয়াল?

চ্যাম্পিয়নস লিগের দ্বিতীয় ম্যাচেই জার্মানি যাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ সফরটা ১১ বারের চ্যাম্পিয়নদের কাছেও আতঙ্কের প্রতিশব্দ।

এ পর্যন্ত জার্মানির মাটিতে ২৯ ম্যাচের কেবল চারটিতে জিততে পেরেছে তারা। এবারের প্রতিপক্ষ বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকেই অ্যাওয়ে ম্যাচে হারাতে পারেনি কখনো, হেরেছে সর্বশেষ তিন দেখাতেই। গত মৌসুমের উলফসবুর্গ সফরটা মনে রাখলেও সিগন্যাল ইডুনা পার্কে আজ রিয়ালের জন্য কঠিন পরীক্ষা।

ঘরের মাঠে সেভিয়ার সঙ্গে প্রথম ম্যাচ গোলশূন্য ড্রয়ের পর আজ ডিনামো জাগরেবের মাঠ জয়ের চ্যালেঞ্জ জুভেন্টাসেরও। এদিকে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন লিস্টার সিটি আজই প্রথম চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচ খেলবে নিজেদের মাঠ কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে, প্রতিপক্ষ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন পোর্তো। ইংল্যান্ডের আরেক দল টটেনহাম আজ মাঠে নামছে রাশিয়ায় সিএসকে মস্কোর বিপক্ষে। সেভিয়া আতিথ্য দেবে অলিম্পিক লিঁওকে, মোনাকোয় যাচ্ছে বেয়ার লেভারকুসেন আর রিয়ালের কাছে আগের ম্যাচেই ২-১ গোলে হারা স্পোর্তিং লিসবন এদিনও নিজেদের মাঠে মুখোমুখি পোলিশ ক্লাব লিগা ওয়ারশ’র, আগের ম্যাচেই ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে যারা ডর্টমুন্ডের কাছে।

টমাস টোসেলের অধীনে ডর্টমুন্ড শেষ ৪ ম্যাচে করেছে ২০ গোল। সেখানে রিয়ালের জার্মানি সফর বেশ বাজে একটা সময়ে। লিগে টানা দুটি ম্যাচ ড্র করেছে তারা। শেষ ম্যাচে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে তুলে নেওয়া নিয়ে হচ্ছে নতুন বিতর্ক। তবে ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ হিরো’ আজকের ম্যাচে নতুন মাইলফলকের সামনে। হ্যাটট্রিক করতে পারলে প্রথম ফুটবলার হিসেবে ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় গোলের সেঞ্চুরি পূর্ণ করবেন তিনি। কিন্তু শেষ ৪ ম্যাচে ২ গোল রোনালদোর সেই ফর্মকে বোঝাচ্ছে না মোটেও। রিয়াল ক্যারিয়ারে প্রথমবার ‘ট্যাকটিক্যাল সাবস্টিটিউট’ হয়ে মনে যদি মেঘ জমে থাকে, তবে ডর্টমুন্ডের আকাশে আজ তা ঝরিয়ে ফেলারও বড় উপলক্ষ তাঁর।

জিনেদিন জিদান এই ম্যাচটিকে দারুণ গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়ার কারণেই দলের সেরা তারকাকে আগের ম্যাচে কিছুটা বিশ্রামে রাখতে চেয়েছিলেন। তবে আজ চাইলেও তিনি পাবেন না লেফট ব্যাক মার্সেলো ও ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ক্যাসিমিরোকে। এই দুই ব্রাজিলিয়ান ইনজুরির কারণে দলের বাইরে। মার্সেলোর জায়গা নিতে পারেন ফ্যাবিও কোয়েন্ত্রাও। ইনজুরি কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর স্কোয়াডে ফিরেছেন এই পর্তুগিজ। মাঠে সেই জড়তা কাজ করলে প্রতিপক্ষের তরুণ রাইট উইঙ্গার উসমান দেম্বেলে সুযোগটা নিতে চাইবেন নিশ্চিত। তবে দেম্বেলে বা মারিও গোেজও নয়, রিয়াল ডিফেন্সের জন্য বড় হুমকি পিয়েরে এমরিক আবামেয়াং। ডর্টমুন্ডের আক্রমণে তিনিই নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ৩১ ম্যাচে ২৫ গোল করে গত মৌসুমে আফ্রিকার বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়া আবামেয়াং এ মৌসুমেও এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচে করেছেন ৬ গোল। শুধু নিজের নয়, দলের পারফরম্যান্স নিয়েও এ মুহূর্তে তিনি দারুণ আত্মবিশ্বাসী, ‘আমরা এখন এমন ফুটবল খেলছি যে কেউ আমাদের হারাতে পারবে বলে মনে হয় না। তার পরও আমরা কঠিন পরিশ্রম করে যাচ্ছি, কারণ নিজেদের নিয়ে আত্মতুষ্টিতে ভোগার সুযোগ নেই। ’

জিদানের জন্য স্বস্তি এই ম্যাচে পাচ্ছেন পেপেকে। ইনজুরির কারণে ড্র হওয়া আগের দুটি ম্যাচেই ছিলেন না এই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডে এদিনও ক্যাসিমিরোর দায়িত্বটা নিতে হবে টনি ক্রোসকে। আক্রমণে রোনালদো ও গ্যারেথ বেলের সঙ্গী হতে পারেন করিম বেনজিমা নয়তো আলভারো মোরাতা। গ্রুপ ‘এফ’ থেকে শেষ ষোলোতে যেতে রিয়াল এবং ডর্টমুন্ড দুই দলই ফেভারিট। লড়াইটা মূলত গ্রুপ সেরা হওয়ার। কাল নিজেদের মাঠে জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের লড়াইটাও তেমনিই। এই রাউন্ডে তিন স্প্যানিশ পরাশক্তিরই প্রতিপক্ষ জার্মানরা, বার্সা যেমন কাল নামবে বরুশিয়া মুনশেনগ্লাডবাখের মাঠে। এএফপি, গোলডটকম


মন্তব্য