kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ম্যানইউ-বার্সার গোলোৎসব চেলসিকে হারাল আর্সেনাল

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ম্যানইউ-বার্সার গোলোৎসব চেলসিকে হারাল আর্সেনাল

ওয়েইন রুনিকে বাদ দেওয়ার দাবি তুলেছিল খোদ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড সমর্থকরাই। নিজেদের অধিনায়ক যেন ‘বোঝা’ দলের জন্য! টানা তিন হারে বিপর্যস্ত হোসে মরিনহোও খুঁজছিলেন ঘুরে দাঁড়ানোর উপায়।

তাই ম্যানেজারের দায়িত্ব নিয়ে প্রথমবার রুনিকে বেঞ্চে বসিয়ে আস্থা রাখলেন তরুণ মার্কাস রাশফোর্ডের ওপর। তাতে সুফলও মিলেছে। রুনিকে বেঞ্চে বসিয়ে ম্যানইউকে ফেরালেন স্বমহিমায়। তারুণ্যের শক্তিতে মুগ্ধ করে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিস্টার সিটিকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে ৪-১ গোলের বড় জয়ে মাঠ ছেড়েছে মরিনহোর শিষ্যরা।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ম্যাচে ৩৭ থেকে ৪২—এই পাঁচ মিনিটে রীতিমতো ঝড় বয়ে গেছে লিস্টারের ওপর দিয়ে। পাঁচ মিনিটে তিন গোল হজম করে আসলে ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছে  ক্লাউদিও রানিয়েরির দল। ম্যানইউর হয়ে লক্ষ্য ভেদ করেছেন ২২ মিনিটে ক্রিস স্মলিং, ৩৭ মিনিটে হুয়ান মাতা, ৪০ মিনিটে মার্কাস রাশফোর্ড আর ৪২ মিনিটে পল পগবা।

লা লিগায় স্পোর্তিং গিজনের জালে গোল উৎসব করেছে লিওনেল মেসিহীন বার্সেলোনাও। লুই এনরিকের দলের জয় ৫-০ গোলে। ২৯ মিনিটে লুই সুয়ারেসের লক্ষ্যভেদে কাতালানদের গোলোৎসবের শুরু। খানিকটা পরে নিচু হেডে ব্যবধান ২-০ করেন রাফিনহা। ৭৪ মিনিটে আলবার্তো লোরা দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ার পর দশজনের স্পোর্তিং গিজনের জালে আরো তিনবার বল পাঠায় কাতালানরা। নেইমারের জোড়া গোলের মাঝে স্কোরশিটে নাম ওঠান আরদা তুরানও।

এমিরেটস স্টেডিয়ামে চেলসিকে ৩-০ গোলের লজ্জায় ডুবিয়েছে আর্সেনাল। একাদশ মিনিটে অ্যালেক্সিস সানচেসের লক্ষ্যভেদে এগিয়ে যায় আর্সেন ওয়েঙ্গারের দল। তিন মিনিট পর ব্যবধান ২-০ করেছেন থিও ওয়ালকট। বিরতির মিনিট পাঁচেক আগে মেসুত ওয়েজিলও স্কোরশিটে নাম লেখালে ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে পড়ে চেলসি। এরপর আর গোল করতে পারেনি কোনো দলই।

সোয়ানসির মাঠে ৩-১ গোলে জিতে লিগে শতভাগ জয়ের রেকর্ড অক্ষুণ্ন রেখেছে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। সিটিজেনদের হয়ে জোড়া গোল আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সের্হিয়ো আগুয়েরোর, অন্যটি রাহিম স্টারলিংয়ের। অ্যানফিল্ডে গোলোৎসব করে লিভারপুল ৫-১ গোলে হারিয়েছে হাল সিটিকে।

গত মৌসুমে লিগ ওয়ানে দুই ম্যাচ হেরেছিল পিএসজি। এবার প্রথম সাত ম্যাচেই তেতো স্বাদ পেল দুই হারের। তুলুজের মাঠে এদিনসন কাভানিরা হেরেছেন ০-২ গোলে। বুন্দেসলিগায় শেষ মুহূর্তের গোলে হামবুর্গের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখ। বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ৩-১ গোলে হারিয়েছে ফ্রেইবুর্গকে। বিবিসি


মন্তব্য