kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশের ভারত-বধ

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বাংলাদেশের ভারত-বধ

আশরাফুলের হ্যাটট্রিকসহ চার গোল

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দেশের ‘বিস্মৃতপ্রায়’ হকি অঙ্গনে অনেক দিন পর আনন্দের বন্যা বইছে। হকি প্রায়ই মেঘে ঢাকা তারা, কখনো-সখনো মেঘ সরিয়ে দেখা যায় আলোর রেখা।

কাল আরেকবার দেশের যুবাদের স্টিকে নতুন প্রাণের সঞ্চার হয়েছে অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের ৫-৪ গোলের দুর্দান্ত জয়ে।

 

অসাধারণ এ জয়ের নায়ক আশরাফুল ইসলাম, তাঁর হ্যাটট্রিকে মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে রচিত হয়েছে বীরত্বগাথা। তাই তো বাঁধভাঙা জয়োল্লাস আর আবেগের মিশেলে বাংলাদেশের হকির ইতিহাসে দিনটি হয়ে যাচ্ছে অনন্য। আবেগে ভেসে গিয়ে ম্যাচ সেরা আশরাফুল ইসলাম বলছেন, ‘এমন একটা দিনের জন্যই অপেক্ষা করছিলাম। আমার গোলে ভারতকে হারিয়েছি, এই ভাবনার মজাটাই অন্য রকম!’ তিনি পেনাল্টি কর্নার বিশেষজ্ঞ। আদায় করা ১০টি পেনাল্টি কর্নারের চারটিতেই গোল উপহারও দিয়েছেন আশরাফুল।

১৬ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে আশরাফুল প্রথমে এগিয়ে নেন দলকে। কিন্তু লিডের স্থায়িত্ব মাত্র চার মিনিট। আরশাদ ভারতের ধরমিন্দরকে ফাউল করে পেনাল্টি স্ট্রোকের আয়োজন করে দিলে সমতায় ফেরে ম্যাচ। ২৫ মিনিটে কনজেংবাম সিংয়ের চমত্কার ফিল্ড গোলে বাংলাদেশ ২-১ গোলে পিছিয়ে পড়ে। এই একবারই কেবল ভারত লিড নিতে পেরেছে। বাকি সময় বাংলাদেশ লিড নিলে, তারা সমতায় ফিরিয়েছে বারবার। কিন্তু শেষবার আর পেরে ওঠেনি। বাংলাদেশের কাছে মাথা নুইয়েই ভারতীয় যুব দলের এশিয়া কাপ শুরু হয়েছে।

পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশ ২৭ মিনিটে আবার পেনাল্টি কর্নার পায়। প্রথমে আম্পায়ার অবশ্য পেনাল্টি স্ট্রোকের সিদ্ধান্ত দিলেও পরে দুই আম্পায়ারের আলোচনায় তা হয়ে গেছে পেনাল্টি কর্নার। এবারও আশরাফুলের দুরন্ত হিটে ম্যাচে ফেরে স্বাগতিকরা। পাঁচ মিনিট বাদে টানা দুটি পেনাল্টি কর্নার কাজে লাগাতে পারলে তখনই আরেক দফা লিড হয়ে যায়। হতে দেননি ভারতীয় গোলরক্ষক পঙ্কজ কুমার। বিরতির পর ৩৬ মিনিটে তাঁর সেই প্রতিরোধ ভেঙে আশরাফুল নিখুঁত হিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করে স্বাগতিকদের আবার স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেন। সেটাও ধরে রাখতে দেননি ভারতের হারদিক সিং। ৫০ মিনিটে ফজলে হোসেন রাব্বির ফিল্ড গোলের লিডও টেকেনি, দলপ্রিত সিংয়ের কোনাকুনি রিভার্স হিটে পরাস্ত বাংলাদেশি গোলরক্ষক আরাফাত। বাংলাদেশের লিড নেওয়া আর ভারতের সমতায় ফেরানোর রোমাঞ্চে ভরা ম্যাচটি জেতানোর দায়িত্ব আশরাফুল ইসলামের। ৬২ মিনিটে এই পেনাল্টি কর্নার স্পেশালিস্টের চতুর্থ গোলটি ৭০ মিনিট পর্যন্ত ধরে রেখে বাংলাদেশের শুভ সূচনা নিশ্চিত হয় অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকিতে। অথচ ম্যাচের নায়ক আশরাফুলের মাঝপথে মাঠ ছেড়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হয়েছিল। পারেননি তাঁকে ঘিরেই ম্যাচ সব পরিকল্পনা বলে, ‘আমার মাংসপেশিতে টান পড়েছিল দুই গোল করার পর। কিন্তু কোচ বলেছেন মাঠে থাকতে পেনাল্টি কর্নার নেওয়ার জন্য। কারণ দীর্ঘ এক মাসের অনুশীলনে আমাকে কেবল পেনাল্টি কর্নারের প্র্যাকটিস করানো হয়েছিল। ’

ইনজ্যুরড হয়ে আশরাফুল সেই প্র্যাকটিসের প্রতিদান দিয়েছেন ভারত বধ করে। পুল ‘বি’র অন্য দুই ম্যাচে পাকিস্তান ৬-১ গোলে চাইনিজ তাইপেকে এবং চীন ৬-০ গোলে হংকংকে হারিয়েছে।


মন্তব্য