kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কড়া নিরাপত্তায় আফগানিস্তান

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কড়া নিরাপত্তায় আফগানিস্তান

ক্রীড়া প্রতিবেদক : নিরাপত্তার তোড়জোড় লম্বা সময় ধরেই ক্রিকেটের সঙ্গী। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ নিয়ে সংশয়, অস্ট্রেলিয়ার না আসা, হলি আর্টিজানের ঘটনার কারণে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের নিরাপত্তা পরিদর্শক রেগ ডিকাসনের সফরপূর্ব রুটিন ভ্রমণটাও বাড়াবাড়ি রকমের গুরুত্ব পেয়ে যাওয়াসহ নানা বিষয়েই ‘ক্রিকেট’ এবং ‘নিরাপত্তা’ শব্দ দুটি একসঙ্গে উচ্চারিত হচ্ছে ঘনঘন।

ইংল্যান্ড দলের বাংলাদেশে পা রাখার আগেই সংক্ষিপ্ত সফরে বাংলাদেশে এসেছে আফগানিস্তান দলও। বুধবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে পা রাখা আফগান ক্রিকেটাররা কাল প্রথম দিনের অনুশীলন সেরেছেন কড়া পাহারায়। অনুশীলনের জায়গায় নিষেধ ছিল গণমাধ্যমের উপস্থিতি, কেউ কথাও বলেননি গণমাধ্যমের সঙ্গে। আজ ফতুল্লায় অনুশীলন ম্যাচের পরই হয়তো শোনা যাবে প্রথম দ্বিপক্ষীয় সফরে বাংলাদেশে আসা আফগানিস্তান দলের অধিনায়ক আসগর স্ট্যানিকজাইয়ের বক্তব্য।

হোটেল ‘র‌্যাডিসন ব্লু’ থেকে কড়া নিরাপত্তায় সেনানিবাসের ভেতরের রাস্তা দিয়েই শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আসেন আফগান ক্রিকেটাররা। বিসিবি অ্যাকাডেমির মাঠে ঘাম ঝরিয়ে হোটেলে ফেরার পথ ধরেন বেলা ১টার দিকে। দুপুরের খাবার খেতে আফগান ক্রিকেটাররা উত্তরার কাবাব ফ্যাক্টরি নামের একটি রেস্তোরাঁয় যাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন, কারণ পাঁচ তারকা মানের র‌্যাডিসন হোটেলের খাবারের মূল্য তাঁদের কাছে অনেক বেশিই মনে হচ্ছিল। যদিও নিরাপত্তাজনিত কারণে সেখানে যাওয়ার অনুমতি মেলেনি আফগান ক্রিকেটারদের, বরং তাঁদের সুবিধার্থে খাবারের দামে ২০ শতাংশ ছাড় দিয়ে তাঁদের হোটেলেই সাশ্রয়ী মূল্যে খাবারের ব্যবস্থা করেছে বিসিবি, জানা গেছে এমনটাই।

বাংলাদেশ সফরের জন্য ভারতের নয়ডায় ১৫ দিনের অনুশীলন ক্যাম্প করেছে আফগানরা। সেপ্টেম্বরের ৩-১৮ তারিখ পর্যন্ত চলা এই ক্যাম্পে অনুশীলন শুরু করেছিলেন ২৬ জন ক্রিকেটার, সেখান থেকে বাংলাদেশ সফরে ডাক পেয়েছেন ১৭ জন। এই দলে যেমন বাংলাদেশে হয়ে যাওয়া অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলা আফগান দলের অধিনায়ক আছেন, অথচ অনুপস্থিত বাংলাদেশকে হারানো সেই ম্যাচে দুই উইকেট করে নেওয়া হামিদ হাসান ও শাপুর জাদরানও। ডানহাতি পেসার হামিদ ও বাঁহাতি পেসার শাপুরকে ছাড়াই শক্তিশালী বোলিং আক্রমণ আফগানদের, এমনটাই দাবি প্রধান নির্বাচক দৌলত আহমদজাইয়ের, ‘দলের বোলিং পারফরম্যান্স ভালো ছিল, আমরা তরুণ খেলোয়াড়দের সুযোগ দিয়েছি। দলীয় শৃঙ্খলার ব্যাপারে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ’ তরুণরা যেমন আছেন, তেমনি অভিজ্ঞ বাঁহাতি স্পিনার হামজা হোটাক ও লেগস্পিনার রশিদ খানও থেকে গেছেন দলে। আফগান দলের সদ্যই সাবেক হওয়া বোলিং কোচ মনোজ প্রভাকর প্রশংসাই করেছেন আফগানদের বোলিং আক্রমণের, ‘আফগানিস্তানের মিডিয়াম পেস বোলিং আক্রমণটা বেশ ভালো। স্পিনারদের মধ্যে হামজা হোটাক আর রশিদ খান বেশ ভালো করছে। ’

বছর দুই আগে বাংলাদেশকে এশিয়া কাপে হারানোর সেই ম্যাচে ব্যাট হাতে বড় রান পাওয়া আসগর স্ট্যানিকজাই এখন অধিনায়ক। কিছুদিন আগেই ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার শিরোপা জিতিয়েছেন কাবুল ইগলসকে, ফর্মটাও মন্দ যাচ্ছে না। সদ্যই হজ করে এসেছেন আফগান অধিনায়ক। বাংলাদেশের উদ্দেশে ভারত ছাড়ার আগেই জানিয়েছেন সিরিজ জয়ের আশাবাদ। সেটা কতটুকু জোরালো তার অনেকটাই প্রমাণ হয়ে যাবে আজকের প্রস্তুতি ম্যাচে।


মন্তব্য