kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


প্যারা-অলিম্পিকে ট্র্যাজিক মৃত্যু

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



প্যারা-অলিম্পিকে ট্র্যাজিক মৃত্যু

সাইক্লিংয়ের রোড রেসে দুর্ঘটনা ঘটে প্রায়। রিও অলিম্পিকেই পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়ে পা ভেঙেছিল ডাচ সাইক্লিস্ট ফন ভেলেতনের।

ছেলেদের রেসে গলায় গুরুতর আঘাত পান ইতালির ভিনসেনজো নিবালি। সেই রিওতেই প্যারা-অলিম্পিকের রোড রেসে এবার ঘটল মর্মান্তিক ট্র্যাজেডি। গত পরশু সি ৪-৫ রেসে দুর্ঘটনায় পড়ে অকালমৃত্যু হয়েছে ইরানি সাইক্লিস্ট সরফরাজ বাহমান গোলবারনেজাদের। প্যারা-অলিম্পিক শেষ হওয়ার মাত্র এক দিন আগে এমন দুর্ঘটনায় রিওতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। গেমস ভিলেজে অর্ধনমিত ইরানের পতাকা। ২০০৮ সালের আসরেও অংশ নেওয়া এই সাইক্লিস্ট এবার দলীয় ইভেন্টে হয়েছিলেন ১৪তম। ব্যক্তিগত ইভেন্টে দুর্ঘটনার আগে ছিলেন ভালো অবস্থানেই।

সরফরাজ বাহমান গোলবারনেজাদের মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা আছে কিছুটা। প্যারা-অলিম্পিক কমিটির মুখপাত্র ক্রেইগ স্পেনসের দাবি, ‘দুর্ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে তাঁকে প্রাথমিক চিকিত্সা দেওয়া হয়। তবে হাসপাতালে নেওয়ার পথে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। ’ কিন্তু প্যারা-অলিম্পিকের যোগাযোগ ব্যবস্থাপক মারিও আনদ্রাদা জানাচ্ছেন, ‘পড়ে গিয়ে মাথায় ব্যথা পেয়েছিলেন সরফরাজ বাহমান। তাঁর হেলমেটে আঘাতের চিহ্ন আছে। ’ সত্যটা জানতে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে আন্তর্জাতিক প্যারা-অলিম্পিক কমিটি। কারণ যা-ই হোক, সরফরাজ বাহমান গোলবারনেজাদ আর নেই, এটাই বাস্তবতা। প্যারা-অলিম্পিক ইতিহাসে এবারই প্রথম মারা গেলেন কোনো অ্যাথলেট। ৪৮ বছর বয়সী এই সাইক্লিস্টের পরিবারের প্রতি প্যারা-অলিম্পিক কমিটির সমবেদনা, ‘নিজের আত্মত্যাগ, অফুরান প্রাণশক্তি আর ভালোবাসা নিয়ে প্যারা-অলিম্পিকে অংশ নিয়েছিলেন সরফরাজ বাহমান গোলবারনেজাদ। তাঁর অকালমৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। সমবেদনা রইল তাঁর পরিবারের প্রতি। ’ এপি


মন্তব্য