kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আজ থেকে আবার ফুটবল লড়াই

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



আজ থেকে আবার ফুটবল লড়াই

ক্রীড়া প্রতিবেদক : খেলোয়াড় সংকট, কোচ বরখাস্ত—বিভিন্ন প্রতিকূলতার মধ্যেও শেখ জামাল লিগে বড় দলের মতোই খেলছে। পয়েন্ট টেবিলে যৌথভাবে তারা এখনো শীর্ষে।

সেই পারফরম্যান্সে অনুপ্রাণিত হয়েই কিনা সপ্তম রাউন্ডের শুরুতেই সুইডিশ এক কোচকে উড়িয়ে আনছে তারা। স্তেফান হ্যানসন নামের ৫৮ বছর বয়সী এই কোচ সুইডেন, ডেনমার্ক, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, মিয়ানমারসহ বিভিন্ন দেশে কাজ করেছেন। কাল রাতেই তাঁর ঢাকায় পৌঁছানোর কথা। প্রায় এক মাস পর আজ আবার লিগ মাঠে গড়াচ্ছে। শুরুতেই মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে বড় ম্যাচ জামালের। তবে হ্যানসন এই ম্যাচেই ডাগআউটে থাকতে পারবেন কি না নিশ্চিত নয়। বাফুফেতে তাঁর নিবন্ধনের আনুষ্ঠানিকতা আছে। লিগ শুরুর ঠিক আগে আগে কোচ শফিকুল ইসলাম মানিককে বরখাস্ত করার পর এত দিন নতুন কাউকেই নিয়োগ দেয়নি শেখ জামাল। ৬ রাউন্ড গোলরক্ষক কোচ মোশাররফ বাদলই ছিলেন দায়িত্বে। জোসেফ আফুসির দায়িত্ব নেওয়ার কথা থাকলেও কোচিং সনদসংক্রান্ত জটিলতায় এ মুহৃর্তে ফিফা থেকে নিষিদ্ধ এই নাইজেরিয়ান। নতুন কাউকেই তাই খুঁজছিল জামাল। কাল ক্লাবটির ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু জানিয়েছেন, ‘প্রোফাইল দেখেই আমরা হ্যানসনকে নিয়েছি। ওর অনেক দেশে কাজ করার অভিজ্ঞতা। আশা করি আমাদের প্রত্যাশা পূরণ হবে। ’ ৬ ম্যাচে তিন জয়, তিন ড্র নিয়ে আরো তিন দলের সঙ্গে সর্বোচ্চ ১২ পয়েন্ট জামালের। তিন দলের একটি আবার মুক্তিযোদ্ধা। তারাও কোনো ম্যাচ হারেনি। বড় দলের মধ্যে আবাহনীর সঙ্গে তারা ড্র করেছে, শেখ রাসেলকে হারিয়েছে। জামালের এটি দ্বিতীয় বড় ম্যাচ বলা যেতে পারে, ময়মনসিংহে শক্তিশালী চট্টগ্রাম আবাহনীকে তারা রুখে দিয়েছে। আজ আরেকটি টানটান উত্তেজনার ম্যাচের অপেক্ষা। মুক্তিযোদ্ধায় নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার আহমেদ কোলো মুসাকে এ পর্যন্ত দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন তৌহিদুল আলম। ৬ ম্যাচে এই দুজনের ৭ গোল। কিন্তু শুধু ফরোয়ার্ড লাইনের সাফল্য নয়, তরুণ কোচ আব্দুল কাইয়ুম সেন্টু পুরো দলকে গেঁথেছেন এক সুতায়। মাঠে তাদের সাফল্যের পেছনে সেই দলীয় চেষ্টাকেই বড় মনে করেন তিনি। মৌসুমের শুরুতে শেখ জামাল কিন্তু ছিল ছন্নছাড়া। ক্লাব ছেড়ে যাওয়া আট খেলোয়াড়ের পেছনে ছুটে তাদের ফেরাতে পারেনি গতবারের চ্যাম্পিয়ন দলটি। এর মাঝে ফেডারেশন কাপের শিরোপা তাদের হাতছাড়া, স্বাধীনতা কাপের সেমিফাইনালে আবাহনীর কাছে হজম করেছে ৬ গোল, তার ওপর আছে কোচ বদল। তবে তাতে লিগে যে প্রভাব পড়বে বলে মনে করা হচ্ছিল মোটেও তা হয়নি। দলটিকে বরং মরিয়া মনে হয়েছে নিজেদের অবস্থানটা ধরে রাখার জন্য। নতুন শক্তি হয়ে ওঠা চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ে সেই প্রকাশ আরো বেশি। ওয়েডসন আনসেলমে, এমেকা ডার্লিংটন এবং ল্যান্ডিং ডারবোয়ে ত্রয়ীও এখনো যেকোনো ডিফেন্সের জন্য আতঙ্ক। আজ মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে তাই একটি উপভোগ্য ম্যাচই হওয়ার কথা তাদের। ডাগআউটে না থাকলেও সে ম্যাচ মাঠে বসেই দেখবেন সুইডিশ কোচ হ্যানসন। শিরোপা ধরে রাখতেই উয়েফা প্রো লাইসেন্সধারী এই কোচকে দলে টানা, আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু যেমন বলছিলেন, ‘লিগের আগে শেখ জামালের অবস্থা যা-ই হোক, এখন আমরা শীর্ষে। আর এই অবস্থানটাই আমরা ধরে রাখতে চাই। ’ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শীর্ষে থাকা দুই দলের লড়াইয়ের আগেই অবশ্য বিকেলে সপ্তম রাউন্ড শুরু হয়ে যাবে তলানির দিকে থাকা দুই দল বিজেএমসি ও উত্তর বারিধারার ম্যাচ দিয়ে। বারিধারার ৬ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট, প্রথম ম্যাচে শেখ রাসেলকে হারিয়ে অঘটনের জন্ম দেওয়ার পর টানা ৫ ম্যাচ তারা হেরেছে, গোল হজম করেছে ১৯টি। তুলনায় ৪ পয়েন্ট বিজেএমসির শক্তিমত্তা বোঝাচ্ছে না মোটেই। কারণ ৬ ম্যাচের ৪টিতেই তারা ড্র করেছে তাও মুক্তিযোদ্ধা, ব্রাদার্স, মোহামেডান ও শেখ রাসেলের মতো দলের সঙ্গে। এই ম্যাচে বিজেএমসিই তাই ফেভারিট। লিগের সিলেট পর্ব শুরুর আগে ঢাকায় এই একটি রাউন্ডই হবে। দ্বিতীয় দিন মাঠে নামবে শেখ রাসেল-ব্রাদার্স ও চট্টগ্রাম আবাহনী-আরামবাগ, ২১ সেপ্টেম্বর লিগে প্রথমবার মুখোমুখি আবাহনী-মোহামেডান অন্য ম্যাচে ফেনী সকারের প্রতিপক্ষ রহমতগঞ্জ। লিগের এখনো পর্যন্ত চমকের নাম রহমতগঞ্জ। ১২ পয়েন্ট নিয়ে তারাও মুক্তিযোদ্ধা, শেখ জামাল ও আবাহনীর সঙ্গে শীর্ষে। এ পর্যন্ত কোনো ম্যাচই হারেনি তারা, তিন জয়ের সঙ্গে তিন ড্র, সর্বশেষ ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীকেও হারিয়েছে তারা।


মন্তব্য