kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ম্যানইউর টানা দ্বিতীয় হার

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ম্যানইউর টানা দ্বিতীয় হার

মৌসুমের শুরুতেই হোসে মরিনহোর কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ। আলোড়ন তোলা ম্যানচেস্টার ডার্বিতে হারের পর ইউরোপা লিগে ডাচ ক্লাব ফেইনুর্দের কাছেও হারতে হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে।

ফেইনুর্দের মাঠে ৭৯ মিনিটে গোল হজম করে ১-০ গোলের হার নিয়ে ইংল্যান্ডে ফিরতে হয়েছে মরিনহোর দলকে। এ নিয়ে টানা চতুর্থ অ্যাওয়ে ম্যাচ হারল রেড ডেভিলরা।

ম্যানসিটির বিপক্ষে খেলা একাদশ থেকে আটটি পরিবর্তন এনেছিলেন এদিন মরিনহো। দাভি দে গিয়া, এরিক বেইলি ও পল পগবা বাদে আর কেউ ছিলেন না, ওয়েইন রুনিও বেঞ্চে। হুয়ান মাতা, মার্কোস রাশফোর্ড ও অ্যান্থনি মার্সিয়াল ছিলেন আক্রমণে। কিন্তু রটারডামে স্বাগতিকদের বিপক্ষে সামান্যই আধিপত্য দেখাতে পেরেছেন তাঁরা। প্রথমার্ধে মার্সিয়ালের একটি শট পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যাওয়া ছাড়া গোলের পরিষ্কার আর কোনো সুযোগও পায়নি ম্যানইউ। প্রথমার্ধ গোলশূন্যভাবে শেষ হওয়ার পর থেকেই শঙ্কা বাড়তে থাকে। দ্বিতীয়ার্ধে একসঙ্গে তিন ফরোয়ার্ডকে উঠিয়ে জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ, মেমফিস দেপেই এবং অ্যাশলে ইয়াংকে মাঠে আনেন মরিনহো। তাতে ম্যানইউ আক্রমণে গতি বাড়ালে জায়গা তৈরি হয় ফেইনুর্দের জন্যও। ৭৯ মিনিটে নিকোলাই ইয়োর্গেনসেন ডান দিক দিয়ে উঠে ক্রস ফেলেন বক্সে, একেবারে আনমার্কড অবস্থায় সেই বল জালে পাঠিয়েছেন ডাচ মিডফিল্ডার টনি ভিলহেনা। ইয়োর্গেনসেন অফসাইডে থাকলে তা চোখ এড়িয়ে গেছে রেফারির। কিন্তু বিতর্কিত সেই গোলেই দুর্ভাগ্যটা লেখা হয়ে গেছে ম্যানইউর। নেদারল্যান্ডসে খেলতে গিয়ে আইরিশ ক্লাব ডুনডাকেও এদিন ১-১ গোলে ড্র নিয়ে ফিরেছে এজেড আল্কমারের সঙ্গে। প্রিমিয়ারের দল সাউদাম্পটন ৩-০ গোলে জিতেছে চেক প্রজাতন্ত্রে স্পোর্তিং ব্রাহার বিপক্ষে। সেখানে ইউরোপের অন্যতম সফল দল নিয়ে দুইবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী কোচ মরিনহোকে ফিরতে হলো অঘটনের শিকার হয়ে। সর্বোচ্চ ট্রান্সফার ফির রেকর্ড গড়া পল পগবাও আরো একবার ব্যর্থ নিজেকে তুলে ধরতে। তবে মরিনহো এই হারের জন্য আলাদা করে কাউকে দায় দিচ্ছেন না, ‘খেলোয়াড়দের মধ্যে কেউ কেউ এই ম্যাচেই প্রথম খেলল এই মৌসুমে। কেউ কেউ ভালো খেলেছে অন্যদের চেয়ে। তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে কাউকে দায় দেওয়ার পক্ষে নই। এক ম্যাচ দেখেই কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা সম্ভব নয়। ’

গ্রুপে পরের ম্যাচ খেলবে ম্যানইউ ইউক্রেনিয়ান ক্লাব জরোয়া লুহান্সকের বিপক্ষে, তারা পরশু ১-১ গোলে ড্র করেছে ফেনেরবাচের সঙ্গে। এদিন ঘরের মাঠে অঘটনের শিকার হয়েছে ইতালিয়ান জায়ান্ট ইন্টার মিলানও। ২-০ গোলে তারা হেরেছে ইসরায়েলি ক্লাব হ্যাপোয়েল বিয়ার শেভার কাছে। জয় পায়নি রোমা ও ফিওরেন্তিনাও। তবে নিজেদের মাঠে অ্যাথলেতিক বিলবাওকে ৩-০ গোলে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে এবারই প্রথম ইউরোপীয় আসরে খেলা সাসুলো। চমক জেনিত সেন্ট পিটার্সবুর্গের ম্যাচেও। ইসরাইলে মাকাবি তেল আবিবের বিপক্ষে ৩-০তে পিছিয়ে পড়ে ম্যাচ জিতেছে তারা ৪-৩ গোলে। বিবিসি


মন্তব্য