kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুখোমুখি প্রতিদিন

ভালো খেলে জয়ে ফিরতে হবে আমাদের

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ভালো খেলে জয়ে ফিরতে হবে আমাদের

লিগের মাঝপথে নতুন কোচের অধীনে ভাগ্য ফেরানোর লড়াই শুরু হবে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের। হারের বৃত্ত ভেঙে দলটাকে জয়ের ধারায় ফেরানোর দায়িত্ব নিয়েছেন কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক।

এই কদিনে দলের কেমন চরিত্র বদল হয়েছে তা নিয়ে তিনি কথা বলেছেন কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের সঙ্গে।

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : কিছুদিন প্র্যাকটিসের পর দলের অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে?

শফিকুল ইসলাম মানিক : দায়িত্ব নেওয়ার পর ৯ দিনের মতো প্র্যাকটিস করিয়েছি। খেলোয়াড়দের এখন মোটিভেটেড মনে হয়, শরীরি ভাষায়ও কিছু পরিবর্তন এসেছে। সব মিলিয়ে মনে হয়েছে, তারা চেষ্টা করতে চায়। আমার বার্তাটাও তাদের দিয়েছি, দলের অবস্থা ফেরানোর জন্য তাদেরই খেলতে হবে। সব ব্যর্থতা কোচের ঘাড়ে যাবে, এটা তো হতে পারে না। তারা পেশাদার ফুটবলার, ক্লাব তাদের অর্থ দেয়, সুতরাং তাদেরই দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে।

প্রশ্ন : দলের ভেতর ম্যাচ জেতার আগ্রহটা কেমন দেখছেন?

মানিক : জেতার মরিয়া ভাবটা আস্তে আস্তে ফিরবে। এ জন্য শুধু খেলা নয়, মাঠের বাইরে শৃঙ্খলাবদ্ধ থাকাও একটা ব্যাপার। ক্লাবে থাকা না থাকার বিষয়টি খুব জরুরি। কেউ ক্লাব টেন্টে থাকবে, কেউ থাকবে না—এটা দলের ভেতর প্রভাব ফেলে। ম্যাচ জেতার জন্য পুরো দলকে এক সুতোয় গাঁথতে হবে।

প্রশ্ন : শেখ রাসেলের অনেকেই তো ইনজুরিতে ছিল...

মানিক : কমলের এখন ইনজুরি আছে, এমিলি (জাহিদ হাসান)-রুম্মনদের ফিট হতে সময় লাগবে। ইনজুরি কাটিয়ে পল এমিল মুক্তিযোদ্ধার সঙ্গে ম্যাচটা খেলেছে। ইনজ্যুরড ফুটবলারদের রিকভারিও ভালো হয়নি, এটার জন্য তাদেরও দায় আছে। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেওয়া এবং অন্য বিষয়গুলোর প্রতি তারা হয়তো খুব সিরিয়াসলি মনোযোগী ছিল না। তার অনুপস্থিতিতে যে দল ভুগছে, সেটা নিজেকে অনুভব করতে হবে। একসঙ্গে এতগুলো ফুটবলার ইনজুরিতে পড়লে শক্তিশালী একাদশ গড়াটাও কোচের পক্ষে কঠিন।

প্রশ্ন : অনেক দিন পর শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র জিতেছে। প্র্যাকটিস ম্যাচ হলেও মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে জয়টা হয়তো অনুপ্রাণিত করবে...

মানিক : জয় সব সময় দলের ভেতর আত্মবিশ্বাস বাড়ায়। ওই ম্যাচে প্রথমার্ধে রাসেল খুব ভালো খেলেছে। মুক্তিযোদ্ধা সে রকম কিছু করতে পারেনি। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে আমি কয়েকজনকে বদলি নামিয়েছিলাম দেখার জন্য। যেমন ইনজুরি-ফেরতা এমিলিকে নামিয়েছিলাম দেখার জন্য। তাতে টেম্পুটা বদলে গেলেও আমি আগামী ম্যাচের জন্য সঠিক একাদশ বাছাই করতে চাই।

প্রশ্ন : পরের ম্যাচটা ব্রাদার্স ইউনিয়নের সঙ্গে...

মানিক : ব্রাদার্স শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। আগামী ২০ তারিখের ম্যাচটা কঠিন; কিন্তু আমাদের ভালো খেলে জয়ে ফিরতে হবে। শেখ রাসেলের হাতে জয় ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। এটা খেলোয়াড়দের জন্যও জরুরি, তাদের যে সামর্থ্য আছে, সেটা দেখাতে হবে। আরো পাঁচ দিন সময় পাব প্র্যাকটিসের জন্য, খেলোয়াড়দের নিয়ে কিছু কাজ করার সুযোগ পাব। আশা করি শেখ রাসেলের ভাগ্য ফেরানোর জন্য খেলোয়াড়রা মরিয়া হবে।


মন্তব্য