kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মারে, পোত্রোর কান্নায় বিদায়

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মারে, পোত্রোর কান্নায় বিদায়

উইম্বলডনের পর অলিম্পিক সোনা। এমন সোনালি সাফল্যে ইউএস ওপেনের হট ফেভারিট ছিলেন অ্যান্ডি মারে।

সেই তিনি হতাশায় ডুবলেন সেমিফাইনালে। চার ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে জাপানের কাই নিশিকোরি তাঁকে হারিয়েছেন ১-৬, ৬-৪, ৪-৬, ৬-১, ৭-৫ গেমে। হুয়ান মার্তিন দেল পোত্রোকে নিয়ে আশার পারদ চড়েনি এতটা। রিও অলিম্পিকের রুপাজয়ী এই আর্জেন্টাইন সেমিফাইনালে পৌঁছে জাগাচ্ছিলেন ২০০৯-এর শিরোপা জয়ের স্মৃতি। তিনিও ছিটকে গেছেন স্তান ওয়ারিঙ্কার কাছে হেরে। এরপর দর্শকদের অভিবাদন পেয়ে অবশ্য ধরে রাখতে পারেননি চোখের জল। মেয়েদের এককে এমন ইন্দ্রপতন নেই। শিরোপাপ্রত্যাশী সেরেনা উইলিয়ামস আর চেক প্রজাতন্ত্রের ক্যারোলিনা প্লিসকোভা পৌঁছেছেন শেষ চারে। ফাইনালের টিকিট পাওয়ার ম্যাচে মুখোমুখি হবেন দুজন।

রিও অলিম্পিকের সেমিফাইনালে মারের কাছে পাত্তা পাননি নিশিকোরি। প্রথম সেট ৬-১ গেমে জিতে ইউএস ওপেনেও দিচ্ছিলেন একতরফা ম্যাচের ইঙ্গিত। এর পর থেকে নিশিকোরির ‘জাপানি সামুরাই’ হয়ে ওঠা। ১৭ বার সার্ভ ভাঙার ম্যাচে শেষ হাসিটা তাঁরই। ২০১৪ সালের ইউএস ওপেনের ফাইনালের পর এবারই প্রথম কোনো গ্র্যান্ড স্লামের শেষ চারে পৌঁছানোয় তাঁর উচ্ছ্বাস, ‘খুব কঠিন ম্যাচ ছিল। শুরুটা ভালো হয়নি আমার। চতুর্থ আর পঞ্চম সেটে নিজের সেরাটা খেলে হারালাম ওকে। সেমিফাইনালে আত্মবিশ্বাস বাড়াবে এই জয়। ’ এএফপি


মন্তব্য