kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ঔজ্জ্বল্য ছড়িয়ে শুরু কসোভোর

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ঔজ্জ্বল্য ছড়িয়ে শুরু কসোভোর

কসোভো,বলকানের রণক্ষেত্র হিসেবে পরিচিত এই ভূখন্ডটি সার্বিয়ার কাছ থেকে স্বাধীনতা পেয়েছে ২০০৮ সালে। যুদ্ধের কারণে কসোভো থেকে অনেকেই পাড়ি জমিয়েছিলেন ভিনদেশে, ফুটবলও খেলছেন অন্য দেশের হয়ে।

ফিফার নিয়মকানুন মেনে কসোভোর হয়ে খেলতে যেসব নিয়মকানুন মানতে হয়, সেসব দাপ্তরিক কাজ শেষে যতক্ষণে কসোভোর খেলোয়াড়রা ছাড়পত্র পেয়েছেন তখন খেলা শুরুর মাত্র ১ ঘন্টা বাকি! সেই দলের কোচ দল গোছাবেনই কখন  আর অনুশীলনই বা করাবেন কখন। এমন পরিস্থিতিও ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি কসোভোর ফুটবলারদের, পিছিয়ে পড়েও তার ড্র করেছে ফিনল্যান্ডের সঙ্গে। ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই প্রথম কোন প্রতিযোগিতামূলক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে কসোভো, সেই ম্যাচে কসেভোর ইতিহাসের প্রথম গোলদাতা হিসেবে ইতিহাস বইতে ঢুকে গেছেন ভ্যালন বেরিশা। গ্যারেথ বেলের জোড়া গোলে মলদোভাকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে ওয়েলস,ইসরায়েলের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জিতেছে ইতালি আর লিচেনস্টাইনের জালে ৮ গোল স্পেনের।

মে মাসে ফিফার কাছ থেকে স্বীকৃতি পায় কসোভোর ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। সোমবার দিনের শুরুর দিকে ফিফার কাছ থেকে ছাড়পত্র মেলে ফুটবলারদের,কিছুক্ষণ পর মাঠে নেমেই তারা ফিনল্যান্ডকে রুখে দিয়ে আদায় করে নেয় মূল্যবান ১ পয়েন্ট। খেলা হয়েছে ফিনল্যান্ডের মাঠে। যে শহরে খেলা, সেই তুর্কুতে কসোভো থেকে আসা বেশ কয়েক হাজার বাসিন্দার বসবাস, তাই মাঠে বেশ সমর্থন পেয়েছেন বেরিশা-লার্ট পাকার্দারা। ম্যাচের ১৮ মিনিটে পলাস আরাজ্জুরির গোলে ফিনল্যান্ড এগিয়ে গেলেও ম্যাচের আয়ূ যখন ১ ঘন্টা তখন পেনাল্টি থেকে গোল করেন অস্ট্রিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন রেডস্টার সালজবুর্গে খেলা মিডফিল্ডার বেরিশা। নিজেদের প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে জেতা কসোভোর পরবর্তী প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া, ৩ দিন পর তারা খেলবে ইউক্রেনের সঙ্গে।

বছর আটেক আগে স্বাধীনতা পাওয়া কসোভোকে বিশ্বের প্রায় ১০০টির মত দেশ স্বীকৃতি দিলেও দেয়নি রাশিয়া। এমনকি ফিফায় কসোভোর সদস্যপদের বিরোধিতাও করেছেসার্বিয়া। তবে উয়েফায় স্বীকৃতি পাবার পর রিও অলিম্পিকে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি কসোভোকে সদস্যপদ দেবার পর ইচ্চবাচ্য করতে পারেনি ফিফা।  

ইউলিয়েন লোপেতেগির অধীনে নতুন সময় শুরু হয়েছে স্পেনের। লম্বা সময় দায়িত্বে ছিলোন ভিসেন্তে দেল বোস্কে। লিওঁতে লিচেনস্টাইনের বিপক্ষে ৮০- গোলে জয়ে জোড়া গোলে অবদান রেখেছেন ডিয়েগো কোস্তা, দাভিদ সিলভা ও আরভালো মোরাতার। একটি করে গোল সের্গি রবার্তো ও ভিতোলোর। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে একই গ্রুপে, গ্রুপ জিতে স্পেন ও ইতালি। সোমবার অন্যদিকে ইতালি ৩-১ গোলে ইসরায়েলকে হারালেও ৮-০ গোলের বড় জয় থেকে পাওয়া বড় গোল ব্যবধানে গ্রুপের শীর্ষ দল স্পেনই। জয়ের পর লোপেতুগি বলছেন, ‘আমরা দ্বিতীয়ার্ধে আমাদের কষ্টের ফসল ঘরে তুলেছি যা সমভব হয়েছে প্রথমার্ধে সবকিছু ঠিকমত করার জন্য। আমরা প্রথম ম্যাচেই ৩টা গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট পেলাম,তাই খুশি লাগছে। ’

৩ পয়েন্ট নিয়ে বাছাইপর্বের ‘ডি’ গ্রুপে শীর্ষে ওয়েলসও। মলদোভার বিপক্ষে তাদের জয় ৪-০ গোলে। ম্যাচের ৩৮ মিনিটে স্যামুয়েল ফোকসও ৪৪ মিনিটে জো অ্যালেনের গোলের পর ৫০ মিনিটে আসে বেলের প্রথম গোল। শেষ মুহূর্তে, ৯৫তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে দ্বিতীয় গোলের দেখা পান বেল। জয়ের পর ওয়েলসের কোচ ক্রিস কোলম্যানের কথা, ‘প্রথম ম্যাচেই ভাল একটা শুরু করতে চেয়েছিলাম। জানতাম খেলাটা কঠিন হবে তাই আমাদের শৃংখলাবদ্ধ ও উদ্যমী থাকতে হবে। সবাই পেশাদারী নৈপুণ্য দেখিয়েছে আর সমর্থনও পেয়েছি দারুণ। বলের দখল আমাদেরই বেশি ছিল, পারলে আরও গোল করা যেত। বাছাইপর্বের অন্যান্য ম্যাচে তুরষ্ক ১-১ গোলে ড্র করেছে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে, ইউরোতে চমক জাগানো আইসল্যান্ড ১-১ গোল ড্র করেছে ইউক্রেনের সঙ্গে,সার্বিয়া ২-২ গোলে ড্র করেছে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গেও অস্ট্রিয়া ২-১ গোলে হারিয়েছে জর্জিয়াকে। গোল ডট কম


মন্তব্য