kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মতোই শুরু জার্মানির

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মতোই শুরু জার্মানির

১৯৮২ সালের ববি রবসনই ছিলেন সর্বশেষ। এরপর ইংল্যান্ডের কোচ হিসেবে প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছেন সবাই।

এবার স্যাম অ্যালারডাইসের জন্যও জয়ের মঞ্চ ছিল প্রস্তুত। ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ স্লোভাকিয়া এমনিতে ফুটবল পরাশক্তি না। তার ওপর পরশুর খেলায় ৫৭তম মিনিটে মার্টিন স্কারটেল লাল কার্ড পাওয়ার পর ১০ জনের দলে পরিণত তারা। তবু তো গোলশূন্য ড্রয়ে ম্যাচ শেষ হওয়ার অবস্থা। শেষ পর্যন্ত ইনজুরি সময়ের পঞ্চম মিনিটে অ্যাডাম লালানার গোলে ১-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড। হাসি ফোটে অ্যালারডাইসের মুখে।

ইউরোতে আইসল্যান্ডের কাছে হেরে বিদায় নেওয়ার পর বিদায় ঘটে রয় হজসনের। তাঁর স্থলাভিষিক্ত ‘বিগ স্যাম’। কিন্তু স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ড খেলতে পারেনি দাপটের সঙ্গে। অধিনায়ক ওয়েইন রুনির এটি ছিল ১১৬তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ। ইংল্যান্ডের হয়ে আউটফিল্ড খেলোয়াড় হিসেবে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড। অ্যালারডাইসের ৪-১-৪-১ ফর্মেশনে মিডফিল্ডে খেলেন রুনি। কিন্তু তেমন প্রভাব নিয়ে খেলতে পারেননি। প্রথম এক ঘণ্টাতে তো প্রতিপক্ষের গোলে কোনো শটই নিতে পারেনি ইংল্যান্ড।

এরই মধ্যে স্কারটেল পান লাল কার্ড। জয়ের জন্য মরিয়া ইংলিশরা এরপর চেষ্টা করে গেছে। কিন্তু আক্রমণে ধার ছিল না খুব একটা। অবশেষে ইনজুরি সময়ে লালানার শট স্লোভাকিয়ার গোলরক্ষক ঠেকাতে পারেননি ঠিকঠাক। বল তাঁর শরীরের নিচ দিয়ে জালে ঢুকে গেলে জয়ের উল্লাসে মাতে ইংল্যান্ড। যে জয়ের পর ইংল্যান্ড কোচ অ্যালারডাইসের কণ্ঠে স্বস্তি, ‘শেষ দিকে স্নায়ুর চাপ ছিল প্রবল। কেননা ১০ জনের বিপক্ষে আমাদের জিততেই হতো। শেষ পর্যন্ত আমরা প্রাপ্য জয় পেয়েছি। খেলায় আধিপত্য ছিল আর খুব গুরুত্বপূর্ণ জয় পেয়েছি। ’

গ্রুপ ‘এফ’-এ ইংল্যান্ডের পাশাপাশি জয়ে শুরু করেছে স্কটল্যান্ড। ৫-১ গোলে মাল্টাকে হারায় তারা। হ্যাটট্রিক করেন রবার্ট স্নগ্রস। এ ছাড়া গ্রুপের অন্য খেলায় ২-২ গোলে ড্র করেছে লিথুনিয়া-স্লোভেনিয়া।

এছাড়া ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বাছাই পর্বে জয়ে শুরু করেছে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। গ্রুপ ‘সি’তে নরওয়েকে ৩-০ গোলে হারায় ইওয়াখিম ল্যোভের দল। থোমাস ম্যুলারের জোড়া গোলের পাশাপাশি অন্য গোলটি জোসুয়া কিমিচের। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ব্যর্থ ইউরো অভিযান শেষে জয় দিয়ে বাছাই পর্ব শুরু করায় খুশি কোচ ল্যোভ, ‘আমরা ভালো ম্যাচ খেলেছি। আধিপত্য বিস্তার করেছি প্রতিপক্ষের ওপর। নরওয়েকে আমরা দাঁড়াতেই দেইনি। ভালো খেলেছি খুব। ’ আনন্দিত গোলদাতা ম্যুলারও, ‘আমরা খুশি। ঠিক পথেই রয়েছি আমরা, যদিও উন্নতির নেক সুযোগ আছে। ’

এছাড়া গ্রুপের অন্য ম্যাচে আজারবাইজান ১-০ গোলে হারায় সান মারিনোকে। আর নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড গোলশূন্য ড্রয়ে ঠেকিয়ে দেয় চেক প্রজাতন্ত্রকে। গ্রুপ ‘ই’তে ডেনমার্ক ১-০ হারায় আর্মেনিয়াকে। কাজাখস্তান-পোল্যান্ড ম্যাচ ২-২ গোলে এবং রোমানিয়া-মন্টেনেগ্রো খেলা ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। এএফপি


মন্তব্য