kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মালদ্বীপে দুই কোচের অভিষেক ম্যাচ

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মালদ্বীপে দুই কোচের অভিষেক ম্যাচ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ভুটান ম্যাচের আগে একটি প্রস্তুতি ম্যাচে নিজের খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স দেখতে চেয়ে টম সেইন্টফিট বিপাকে পড়েছেন। মালদ্বীপের বৃষ্টি প্র্যাকটিসে নামতে দিচ্ছে না তাঁর দলকে।

গতকালও একরকম হোটেলে শুয়ে-বসে কাটিয়েছে বাংলাদেশ দল। অথচ মালদ্বীপের বিপক্ষে আজকের আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে অভিষেক হচ্ছে এই বেলজিয়ান কোচের।

মালেতে বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় শুরু এ ম্যাচটা তাই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ এই কোচের জন্য। আন্তর্জাতিক ফুটবলে ক্রমাগত ব্যর্থতায় বাংলাদেশ দলের অবস্থা খুব সঙ্গিন। বিশ্বকাপ বাছাই শেষে এএফসি কাপ বাছাইয়ের প্রথম পর্বের প্লে-অফে তাজিকিস্তানের বিপক্ষে হেরেছে দুই ম্যাচই। তাই ভুটানের বিপক্ষে শেষ ‘লাইফ-লাইন’ কাজে লাগানোর জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে টম সেইন্টফিটকে। ৪৩ বছর বয়সী এই কোচের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে দুই মাসের জন্য, অর্থাৎ ভুটানের বিপক্ষে দুটি প্লে-অফ ম্যাচ পর্যন্ত। এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে কোচও একটি শক্তিশালী দল গড়ার চেষ্টা করেছেন। দুই দফায় ১৫ দিন প্র্যাকটিসে ২৩ জনকে বাছাই করে মালদ্বীপে নিয়ে গেছেন দলের শক্তি যাচাই করতে। যাওয়ার আগে কোচ বলে গেছেন, ‘মালদ্বীপের ম্যাচটি খুব কঠিন হবে, তাদের ফুটবল অনেকখানি এগিয়েছে। কিন্তু এটা আমার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। ভুটানের বিপক্ষে যে কৌশলে খেলতে চাই, সেটা এই ম্যাচে প্রয়োগ করার চেষ্টা থাকবে। খেলোয়াড়রা মাঠে কতটুকু করতে পারছে, সেটাই দেখার বিষয়। ’ মালদ্বীপের ম্যাচে তিনি বুঝে নেবেন ফুটবলারদের সামর্থ্য, পাশাপাশি দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে ম্যাচ জেতাটাও জরুরি।

মজার ব্যাপার হলো মালদ্বীপ এবং তাদের নতুন কোচের অবস্থাও একই। তারা এই ম্যাচটি খেলছে এএফসি কাপ বাছাই প্লে-অফের প্রস্তুতি উপলক্ষে। আগামাী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে লাওসের বিপক্ষে মালদ্বীপ খেলবে প্লে-অফ দুটি। এই দুই ম্যাচের জন্য তারাও নিয়োগ দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান কোচ ড্যারেন স্টোয়ার্টকে। এর আগে সিঙ্গাপুর পেশাদার লিগে কাজ করা এই কোচেরও আজ অভিষেক হবে মালদ্বীপের হয়ে। তাঁর সুবিধা হলো, মালদ্বীপ এই মুহূর্তে বাংলাদেশের চেয়ে ভালো ফুটবল খেলে। আশির দশকে তাদের বলে-কয়ে হারালেও বাংলাদেশ ফুটবলের সেই যৌবন ফুরিয়ে গেছে। বিশেষ করে গত এক দশকে মান এতই নিম্নমুখী হয়েছে, সর্বশেষ দুটি ম্যাচে বাংলাদেশ ৩-১ গোলে হেরেছে মালদ্বীপের কাছে। এর পরও দুই দলের ১১ ম্যাচের লড়াইয়ে বাংলাদেশ জিতেছে ৫টি, ৩টি ড্র এবং ৩টি হার। সর্বশেষ জিতেছে ২০০৩ সালে ঢাকায় সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে। পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকলেও বাংলাদেশের হালের ফুটবলে ইতিবাচক কোনো বার্তা নেই। সেইন্টফিট অবশ্য চার নতুন তরুণকে নিয়ে মালদ্বীপ গেছেন ভুটান ম্যাচের আগে একটি শক্তিশালী দল দাঁড় করাতে।

দলের শক্তি যাচাইয়ের ম্যাচে আজ দুই নতুন কোচের কৌশলেরও পরীক্ষা হবে।


মন্তব্য