kalerkantho


শেষ ম্যাচেও কঠিন পরীক্ষা

বিশ্বকাপ বাছাই

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শেষ ম্যাচেও কঠিন পরীক্ষা

আরেকবার গোলবন্যার আশঙ্কায় ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করেছে বাংলাদেশ ফুটবল টিম ম্যানেজমেন্ট! সঙ্গে ‘নিজেদের ভুলে গোল না খাওয়ার’ সতর্কতাও জারি আছে। বাস্তবতা হলো, জর্দানের শ্রেয়তর ফুটবলের বিপক্ষে ভুল না করে উপায় নেই। তাই ভুলের মাত্রা কমানোর লক্ষ্যে আজ আম্মানে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ।

বাছাই পর্বে ‘বি’ গ্রুপে তাজিকিস্তানের ম্যাচ থেকে পাওয়া ১ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ সবার শেষে অবস্থান করছে। আর জর্দান (১৩) লড়ছে অস্ট্রেলিয়ার (১৫) সঙ্গে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য। দুই দলেরই স্বপ্নে বিশ্বকাপ। এ জন্য জর্দানের ফুটবল কর্তা প্রিন্স আলী বাছাই পর্বের মাঝপথে ডেকে এনেছেন টটেনহামের সাবেক কোচ হ্যারি রেডন্যাপকে। জর্দানের দায়িত্ব নিয়ে এই ব্রিটিশ ফুটবল কোচ বলছেন, ‘আমাদের যতটা সামর্থ্য আছে সব দিয়ে চেষ্টা করব। এর বাইরে কিছু করার ক্ষমতা আমাদের নেই। আমার জায়গা থেকে আমি চেষ্টা করছি এখন খেলোয়াড়রা সেভাবে করতে পারলে আমাদের অবশ্যই ভালো সুযোগ আছে। ’ আজ এবং আগামী ২৯ মার্চ অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ জিতলেই তারা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে এশিয়ার সেরা ১২ দলে জায়গা নিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শেষ পর্বের লড়াইয়ে শরিক হবে। নতুন কোচ যেভাবে জর্দানকে উদ্দীপ্ত করছেন তাতে জর্দানের গোল উৎসবের শঙ্কা আরো বাড়ছে বৈকি।

গত সেপ্টেম্বরে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে নিজেদের মাঠেই বাংলাদেশ ৪-০ গোলে হেরেছিল জর্দানের কাছে। উপরন্তু অ্যাওয়ে ম্যাচের আগে এখনো আবুধাবির ভরাডুবির ম্যাচ থেকে বের হতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৮ মার্চ প্রীতি ম্যাচে আরব আমিরাতের কাছে ৬-১ গোলে হারা ম্যাচে নিজেদের ভুলগুলো মানতে পারছেন না সানচেজ মরেনো। বাংলাদেশের এই স্প্যানিশ কোচ কাল সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের ভুল কমানোর কথাই বলেছেন, ‘জর্দান অনেক শক্তিশালী দল। তাদের বিপক্ষে আমাদের লড়াইয়ের মূল উদ্দেশ্য থাকবে, নিজেদের ভুলে যেন গোল না হয়। নিজেদের সামর্থ্যের পুরোটা দেওয়ার চেষ্টা করব, তাতে ফল যা হওয়ার হবে। ’ বাংলাদেশের জন্য অনুপ্রেরণা হতে পারে আরব আমিরাতের বিপক্ষে আবুধাবির ম্যাচের প্রথমার্ধ। ১-১ গোলের সমতায় রেখে বিরতিতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সেখানে আছে গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানার দুর্দান্ত কিছু সেভ। দ্বিতীয়ার্ধে ভালো লড়াই করলেও শেষ ৭ মিনিটের তোপে হারটা শেষ পর্যন্ত লজ্জাকরই হয়েছে। তাই আজকের ম্যাচে দেখা যাবে পুরো রক্ষণাত্মক বাংলাদেশ। চোটগ্রস্ত দুই মিডফিল্ডারের জায়গা নিতে পারেন ফাহাদ ও রাব্বি। দলে যত পরিবর্তনই হোক, আবারও কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে গোলরক্ষক-ডিফেন্ডাররা। কারণ লড়াইটা যে অসম, ৮২ নম্বরে থাকা জর্দানের সঙ্গে ১৭৭তম বাংলাদেশের। বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন দেখা এক দলের সঙ্গে সাফের গণ্ডিতে আটকে থাকা দলের।


মন্তব্য