kalerkantho


সবার আগে সেমিতে নিউজিল্যান্ড

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



সবার আগে সেমিতে নিউজিল্যান্ড

টানা ৩ ম্যাচ জিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠে গেছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম দুই ম্যাচে ভারত ও অস্ট্রেলিয়াকে হারানো দলটি কাল ২২ রানে হারিয়েছে পাকিস্তানকে। মার্টিন গাপটিলের ৮০ রানের ইনিংসে ভর করে ১৮০ রান তোলে কিউইরা। পাকিস্তানের শুরুটা ভালো হলেও শেষ পর্যন্ত ১৫৮/৫-এ থেমেছে তাদের ইনিংস।

কাল মোহালিতে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়া দলকে একাই পথ দেখাচ্ছিলেন গাপটিল। সেঞ্চুরিটাও মনে হচ্ছিল সময়ের ব্যাপার। কিন্তু গত তিন বছরে সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপটা তাঁর থেকেই গেল। ৮০ রানে থামলেও তাঁর বিধ্বংসী ওই ইনিংসই অবশ্য কিউইদের নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৮০ পর্যন্ত যাওয়ার পথ করে দিল।

পাকিস্তানকে হারালে শেষ চার নিশ্চিত হয়ে যায় এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অধিনায়ক উইলিয়ামসন আর গাপটিল ৬২ রানের দারুণ সূচনা এনে দেন। যদিও তাতে উইলিয়ামসনের (২১ বলে ১৭) সামান্যই! এরপর কলিন মুনরো ও কোরে অ্যান্ডারসনরাও পরিস্থিতির চাহিদা অনুযায়ী ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ হলেও একাই পুষিয়ে দিচ্ছিলেন গাপটিল। ৩৩ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ফিফটি করে ফেলা এ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ সামির ভেতরে ঢোকা গুড লেন্থ বল থার্ডম্যান দিয়ে গলাতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনেন। বল ব্যাটের ভেতরের কানায় লেগে আঘাত হানে স্টাম্পে, তাতেই তাঁর ৪৮ বলে ৮০ রানের ইনিংসটির সমাপ্তি। দলের সংগ্রহ তখন ৩ উইকেটে ১২৭, বল বাকি ৩৩। শেষ দিকে কোরে অ্যান্ডারসনের ১৪ বলে ২১ এবং দুই বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ২৩ বলে ৩৬ রানের রস টেইলরের আরেকটি ঝোড়ো ইনিংসেই বড় সংগ্রহ গড়ে কিউইরা।

পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের জন্য শেষ পর্যন্ত তা ধরাছোঁয়ার বাইরেই থেকে যায়। শুরুতে শারজিল খান ৪৭ (২৫) রানের ঝড়ো ইনিংস খেললেও তাঁর দেখানো পথে হাঁটতে পারেননি অন্যরা। শারজিল- আহমেদ শেহজাদের ওপেনিং জুটিতেই আসে ৬৫ রান। শেহজাদ অবশ্য ৩০ রান তুলতে ৩২ বল খরচ করেছেন। চারে নামা উমর আকমল ২৪ করেছেন ২৬ বল খেলে। শহীদ আফ্রিদির ৯ বলে ১৯ রানের ইনিংসও তাই কাজে আসেনি। ১৬ ওভারের সময় রান রেট পৌঁছে ১৪-তে। শেষ ৩ ওভারে প্রয়োজন হয় ৪৪ রানের। আকমলের বিদায়ের পর শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ মিলেও লড়াইটা জিততে পারেননি। ক্রিকইনফো


মন্তব্য