kalerkantho

26th march banner

ডিফেন্ডারদের মান রক্ষার চ্যালেঞ্জ

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের মতো আজকের প্রীতি ম্যাচের চিত্রটিও একই—বাংলাদেশ ডিফেন্স বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত। জর্দান ম্যাচের আগে রেজাউল-কেষ্ট-তপুদের ডিফেন্স সংগঠনের রিহার্সেল দেখা যাবে।

আবুধাবিতে স্বাগতিক আরব আমিরাতের বিপক্ষে আজকের প্রীতি ম্যাচটি মূলত ২৪ তারিখে জর্দানের ম্যাচের প্রস্তুতি। তার মানে জেতার জন্য তৈরি হওয়া কিংবা আত্মবিশ্বাস বাড়ানো, এ রকম কিছু নয়। পুরো বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ঢাকায় তাজিকিস্তানের ম্যাচটি বাদ দিলে বাকি ছয় ম্যাচেই গোলের মহোৎসব হয়েছে বাংলাদেশের জালে।

জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে আজ সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষেও এই লক্ষ্য নিয়ে নামবে বাংলাদেশ। দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রূপু বলেছেন, ‘প্রতিপক্ষ নিয়ে বলার কিছু নেই, তাদের সঙ্গে আমরা কিভাবে লড়ব, সেটাই হলো আসল। ওদের আক্রমণের সময় মাঝমাঠ থেকে রক্ষণ পর্যন্ত আমরা কতটা সফলভাবে ডিফেন্স করতে পারছি, সেটাই দেখার বিষয়। তারপর কাউন্টার অ্যাটাকে ওঠার কাজটাও করতে হবে। ’ এ ছাড়া উপায়ও নেই। ফুটবল বিশ্বে দুই দল দুই ভুবনের বাসিন্দা, ফিফা র্যাংকিংয়ে বাংলাদেশ যখন ১৭৭তম অবস্থানে তখন আরব আমিরাত ৬৪ নম্বরে। সুতরাং এই দলের বিপক্ষে ৯০ মিনিট ঠিকঠাক রক্ষণ সামলে রাখাটাই আজ বড় চ্যালেঞ্জ। সেখানে আবার ডিফেন্ডার রেজাউল করিম অনেক দিন পর দলে ফিরেছেন অধিনায়কের আর্মব্যান্ড বেঁধে। অথচ ডিফেন্সে তাঁর অবিস্মরণীয় কীর্তির কথা কারো জানা নেই, বরং সদ্য সমাপ্ত এসএ গেমসে অনূর্ধ্ব-২৩ দলে তাঁর ভুলের মাসুল দেওয়ার কথা সবার মনে আছে। এর পরও বিস্ময়করভাবে কোচ সানচেজ মরেনো এই ডিফেন্ডারকে জাতীয় দলে প্রমোশন দিয়েছেন আর উপেক্ষা করেছেন সবচেয়ে অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরীকে।

গত ১৫ মার্চ এএফসি কাপে মালয়েশিয়ান দলের বিপক্ষে শেখ জামালের কেষ্ট-তপুদের পারফরম্যান্সও ছিল ভুলে ভরা। তাই কেষ্ট কুমারের আহ্বান, ‘আরব আমিরাতের ম্যাচের ভিডিও দেখেছি, খুব ভালো ফরোয়ার্ড লাইন তাদের। শুধু ডিফেন্সের দিকে চেয়ে থাকলে হবে না, সবাইকে নিচে নেমে সহযোগী হতে হবে। ’ হারের নতুন রেকর্ড এড়াতে হলে তা-ই করতে হবে। এ পর্যন্ত চারটি ম্যাচের চারটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ। বড় হার ৭-০ গোলের, ৯৩ সালে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে। জাপানে অনুষ্ঠিত ওই বাছাই পর্বে প্রথম সাক্ষাতের ফল ছিল চমত্কার। আরব আমিরাতের কাছে মাত্র ১-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। এটাই হতে পারে আজকের অনুপ্রেরণা।


মন্তব্য