kalerkantho


প্রিভিউ

অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার শুরু আজ

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার শুরু আজ

ওয়ানডে বিশ্বকাপের পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার ক্ষেত্রে বিশ্ব টি-টোয়েন্টির খতিয়ান একদমই সাদামাটা। পাঁচ আসরের মধ্যে একবারের ফাইনালিস্টদের তবু হিসাবের বাইরে রাখার কোনো উপায়ই নেই।

যেমন বৈশ্বিক আসরে বারবার ব্যর্থতার পরেও দক্ষিণ আফ্রিকাকে ফেভারিট মানতে হয়। ভিন্ন মেরুতে দাঁড়িয়ে থাকা এই দুই দলই আজ তাদের বিশ্ব টি-টোয়েন্টি অভিযান শুরু করতে চলেছে। ধর্মশালায় অস্ট্রেলিয়া নামছে সুপার টেনের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ভারতকে স্পিন ভেল্কিতে নাজেহাল করে আসা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। আর মুম্বাইয়ে প্রোটিয়াদের মুখোমুখি নিজেদের প্রথম ম্যাচে ক্রিস গেইল তাণ্ডবে উড়ে যাওয়া ইংল্যান্ড।

১৮২ রান করেও গেইলের ব্যাটে ছাইভস্ম হওয়ার ‘হ্যাংওভার’ ইংলিশদের এই ম্যাচে বেশ চাপে রাখবে বলেই বিশ্বাস প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসির, ‘প্রথম ম্যাচটি যারা হেরে যায়, তাদের জন্য পরের ম্যাচটি বাড়তি চাপেরই হয়। ওদের জায়গায় থাকলে আমাদেরও একই অবস্থা হতো। ’ যদিও ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগান তা মানছেন না। বরং এটিকে ‘মাস্ট উইন গেম’ রায় দিয়ে এর মধ্যে মন-প্রাণ সঁপে দেওয়ার কথাই বলছেন, ‘আগের ম্যাচটি এখন অতীত। আমরা সামনের ম্যাচেই সমস্ত মনোযোগ ঢেলে দেব তাই।

ইংল্যান্ড তবু এক ম্যাচ খেলে ফেলেছে। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরু করার আগে অস্ট্রেলিয়াও যে টি-টোয়েন্টিতে ভালো অবস্থায় আছে, সেটি বলার সুযোগ নেই। কারণ এক মাস আগেই মাত্র অ্যারন ফিঞ্চকে সরিয়ে সংক্ষিপ্ততম সংস্করণেরও অধিনায়ক করা হয়েছে স্টিভেন স্মিথকে। গত ১২ মাসে অস্ট্রেলিয়াও খেলেছে মোটে ৭টি ম্যাচ, যার একটিও আবার ভারতীয় উপমহাদেশে নয়। সবশেষ ১১ ম্যাচে ৩৭ জন খেলোয়াড় নামানোর ব্যাপারটিই স্পষ্ট করে দিচ্ছে যে এই ফরম্যাটের জন্য ভারসাম্যপূর্ণ দল দাঁড় করাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে। তার ওপর ধর্মশালায় প্রথম ম্যাচের এক দিন আগেও অধিনায়ক স্মিথ জানেন না যে তিনি নিজে ব্যাটিং অর্ডারে কয় নম্বরে নামবেন! ওপেন করবেন কারা, দুজনই ডানহাতি নাকি বাঁহাতি কিংবা বোলিং আক্রমণের রূপরেখাই বা কী হবে—কিছুই চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। শুনতে খারাপ শোনালেও এসবের কিছুই কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার ব্যর্থতাও নিশ্চিত করছে না। যদি তা-ই হতো, তাহলে ভারতও কিউইদের সামনে হুমড়ি খেয়ে পড়ত না। অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে তাদের হারিয়ে আসা ভারতের চেয়ে ভালো প্রস্তুতি নিয়ে তো আর কোনো দলই এই আসরে নামেনি।


মন্তব্য