kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


হিথ স্ট্রিক যখন বলছেন...

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



হিথ স্ট্রিক যখন বলছেন...

চাইলে হিথ স্ট্রিকের বলা দেড় বছর আগের কথাগুলোই হুবহু তুলে দেওয়া যায়। কারণ ২০১৪-র সেপ্টেম্বর আর ২০১৬-র মার্চে বলা কথার মধ্যে যে মৌলিক কোনো তফাত নেই। পেসার আল-আমিন হোসেনের অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার পর জিম্বাবুয়ের সাবেক এ ফাস্ট বোলার যা বলেছিলেন, এবার ঠিক তা-ই বললেন তাসকিন আহমেদকে নিয়েও। সেবার আল-আমিনকে নিয়ে যেমন সন্দেহমুক্ত ছিলেন, তেমনি এবার তাসকিনের অ্যাকশন বিষয়েও নিঃসংশয় তিনি। এখন দেখার বিষয় দুজনের ক্ষেত্রেই তাঁর টানা উপসংহার এক হয় কিনা। আইসিসি অনুমোদিত পরীক্ষাগার থেকে আল-আমিনের অ্যাকশনের বৈধতার ছাড়পত্রই মিলেছিল। তাসকিনের ক্ষেত্রেও কি তাই হওয়ার কথা নয়?

তা জানতে অবশ্য খুব বেশি অপেক্ষায়ও থাকতে হচ্ছে না। চেন্নাইয়ে অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে গতকালই দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আরেক অভিযুক্ত বোলার, বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি। গত রাতে হয়ে যাওয়া ওমানের বিপক্ষে ম্যাচের একাদশ ভাবনায়ও যিনি বিবেচনায় ছিলেন। যদিও ‘আজ নয়তো কাল’ যে তাঁর অ্যাকশন প্রশ্নের মুখে পড়তে পারে, তা নিয়ে বাংলাদেশ শিবির প্রস্তুতই ছিল। এ কারণেই তাঁর দিকে আম্পায়ারদের শ্যেন দৃষ্টি যতটা প্রত্যাশিত ছিল, ঠিক ততটাই অপ্রত্যাশিত তাসকিনের অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন ওঠাটা। আরাফাতের পর আজ সেই তাসকিনও ছুটছেন চেন্নাইয়ের পরীক্ষাগারে।

সেই পরীক্ষার সম্ভাব্য ফল গত পরশুই অনুমান করতে পারছিলেন বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ। ধর্মশালায় সংবাদ সম্মেলনে বলছিলেন, ‘তাসকিনের সঙ্গে কাজ শুরু করার পর থেকে এখনকার সময় পর্যন্ত ফুটেজ দেখেছি। ওর অ্যাকশনে কোনো পরিবর্তন আমি দেখিনি। কোচিং স্টাফের সদস্য এবং আরো কয়েকজন মিলে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, ওর অ্যাকশন ঠিকই আছে। ’

সেই সঙ্গে আরো যোগ করেছেন, ‘নিজের বোলিংয়ের ফুটেজ দেখে তাসকিন এখন সন্তুষ্ট। আমার মতে, ওর ডেলিভারি অ্যাকশন পুরোপুরি বৈধ। এখন আমাদের একটি প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যেতে হবে। পরীক্ষা দিতে হবে ওকে। আশা করি, এরপর ব্যাপারটি মিটেও যাবে। ’ তাঁর কথামতো আল-আমিনের সমস্যাও মিটে গিয়েছিল। দেড় বছর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে সেন্ট লুসিয়া টেস্টের আগে বলা কথাগুলো একবার মিলিয়ে নিন না, ‘আমি ফুটেজ দেখেছি। আমার তো কোনো সমস্যা আছে বলে মনে হয়নি। তার পরও আম্পায়াররা নিশ্চয়ই কিছু একটা দেখেছেন। কাজেই পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে ওকে যেতে হবে। যাক না, সমস্যা নেই। আমার বিশ্বাস ওর অ্যাকশন ঠিকই আছে। ’

স্ট্রিকের কথা কি এবার তাসকিনকে নিয়েও সংশয়মুক্ত হওয়ার আশা বাড়িয়ে দিচ্ছে না?


মন্তব্য