kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমরা ঠিকভাবেই এগোচ্ছি

নতুন মৌসুমের জন্য শেখ রাসেলকে তৈরি করছেন কোচ মারুফুল হক। স্থানীয় তারকাদের পাশাপাশি এবার বিদেশি তারকাদের দলে ভেড়াচ্ছে শিরোপাপ্রত্যাশী দলটি। সেই লক্ষ্যে প্রস্তুতির খুঁটিনাটি জানতেই কালের কণ্ঠ স্পোর্টস মুখোমুখি হয়েছিল এই কোচের

১২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আমরা ঠিকভাবেই এগোচ্ছি

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : প্রায় মাসখানেক হলো আপনাদের ক্যাম্প চলছে, কেমন হচ্ছে নতুন মৌসুমের প্রস্তুতি?

মারুফুল হক : এখনো পর্যন্ত সব কিছু যেভাবে হচ্ছে তাতে আমি সন্তুষ্ট। খেলোয়াড়রা শারীরিক-মানসিকভাবে চাঙ্গা আছে।

কারো কোনো ইনজুরি নেই। মূলত ট্যাকটিকাল দিকগুলোই দেখানো হচ্ছে এখন, ফাঁকে ফাঁকে কন্ডিশনিং ট্রেনিংটাও হচ্ছে।

প্রশ্ন : আজই কলম্বিয়ান একজন স্ট্রাইকার এসেছেন ট্রায়াল দিতে, তাঁর ব্যাপারে কতটা জানেন?

মারুফ : খুব বেশি জানি না। মাঠেই ওকে দেখার অপেক্ষায় আছি। আজই ওর অনুশীলনে আসার কথা। তার পরই আসলে মন্তব্য করা যাবে। এর আগে প্রোফাইল দেখেছিলাম এক ঝলক, তাতে আসলে স্পষ্ট করে কিছু বলাও যায় না। আশা করি ভালোই হবে।

প্রশ্ন : ফিখরু তেফেরা তো টিকে গেছেন, তাঁকে কেমন মনে হচ্ছে?

মারুফ : ফিখরু কোয়ালিটি প্লেয়ার, সন্দেহ নেই। সে এখানেও ভালো করবে সেই আশাতেই আছি। অনুশীলনে ও খুব ভালো করছে, খাটছে। স্থানীয়দের সঙ্গে ওর বোঝাপড়াটাও তৈরি হচ্ছে ধীরে ধীরে।

প্রশ্ন : তার মানে যতটা ‘মুডি’ ভাবা হয়েছিল তাঁকে শুরুতে, তেমনটা নয়?

মারুফ : না না, মোটেও তা নেই। সবার সঙ্গে ও ভালোভাবেই মানিয়ে নিচ্ছে। বেশ কো-অপারেটিভ।

প্রশ্ন : মাসাম্বা সাম্বো টিকলেন না শুধু কি ফিটনেসের কারণে?

মারুফ : হ্যাঁ, ফিটনেসের কারণেই। ওর ওজন বেশ বেশি। টার্নিংয়ে বেশ ধীর গতির। ওর ইউরোপের শীর্ষ পর্যায়ে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ফিটনেসে অবস্থা এতটাই খারাপ যে কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে মনে হয়নি। চুক্তিটা হয়নি সে কারণেই।

প্রশ্ন : ক্যাম্পে স্থানীয়রা কেমন করছে?

মারুফ : আমি সন্তুষ্ট ওদের নিয়ে। ছয়জন এই মুহূর্তে অবশ্য জাতীয় দলের ক্যাম্পে আছে—জামাল, নাসির, লিটন, রাব্বী, রনি ও শাহেদ। ওদের পাচ্ছি না, এটা একদিক দিয়ে ঘাটতি। কিন্তু কিছু করার তো নেই। জাতীয় দলের দায়িত্বটাই সবার আগে। তা ছাড়া অন্য যারা আছে সবাই পরিকল্পনামতোই করছে সব কিছু। সিনিয়রদের মধ্যে মিঠুন, এমিলি, মিশু, মিন্টু শেখরা আছে। ওরা গুরুত্ব দিয়েই করছে সব কিছু।

প্রশ্ন : জামাল ভুঁইয়া শেখ জামালের হয়ে এএফসি কাপে খেলেছেন, তাতে কোনো প্রভাব পড়ছে?

মারুফ : নাহ্। আমি কোনো সমস্যা দেখছি না। আশা করি নেতিবাচক কিছু হবে না।

প্রশ্ন : এএফসি কাপে শেখ জামালের প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতিটাও হয়ে যাচ্ছে, এদিক থেকে তারা কি এগিয়ে গেল?

মারুফ : হয়তো-বা, তবে আমরাও ঠিকভাবেই এগোচ্ছি।


মন্তব্য