kalerkantho


সফল অলরাউন্ডার হতে চান ঋতুমনি

৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



সফল অলরাউন্ডার হতে চান ঋতুমনি

বগুড়ার মেয়ে ঋতুমনি। খেলেছেন মেয়েদের ক্লাব ক্রিকেট ও বিভাগীয় পর্যায়ে।

খাদিজাতুল কুবরার এলাকার মেয়ে ঋতুও একই গুরুর শিষ্যা, মুসলিম স্যার।   রাজশাহীর বিভাগীয় দলে খেলেছেন এই অলরাউন্ডার, ক্লাব ক্রিকেটে খেলেছেন আজাদ স্পোর্টিংয়ের হয়ে। ২০১২ সালের আগস্টে, ডাবলিনে পাকিস্তানের মেয়েদের দলের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে জাতীয় দলে অভিষেক হয় ঋতুমনির। তার আগে অবশ্য ২০১১ সালে মেয়েদের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের জন্য প্রাথমিক স্কোয়াডে থাকলেও শেষ পর্যন্ত মূল দলে জায়গা হয়নি। একই রকম ভাগ্য মেয়েদের টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরের গত সংস্করণেও। দেশের মাটিতে খেলা, ক্যাম্পে একই রুমে থাকা মেয়েটি বা পাশেই দাঁড়িয়ে অনুশীলন করা মেয়েটি বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়ে গেল আর ঋতুমনি পেলেন না, এই হতাশা বারবার চেপে ধরত তাঁকে। সেই হতাশাকে ঠেলে সরিয়ে দিয়েই জেদ নিয়ে কঠোর পরিশ্রমে নিজেকে তৈরি করেছেন। তাইতো অভিষেকটা হয়েছে বিদেশের মাটিতেই, বিদেশ সফরের দলের জন্য যে নিজেকে যোগ্য করে তৈরি করেছিলেন যমুনা পারের মেয়ে। মূলত বাংলাদেশ মহিলা দলের একসময়ের কোচ বীরাসিংহেই ঘষে-মেজে তৈরি করে দিয়েছেন ঋতুমনিকে। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের মতো বড় আয়োজনে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছেন ঋতুমনি, স্বপ্নটাও তাঁর বড়। অন্তত দুটি দলের বিপক্ষে জয় চান ঋতু, ব্যাটে-বলে অবদান রাখতে চান দুই ভূমিকাতেই। ব্যাট করলে স্ট্রাইকরেট রাখতে চান ১০০-র বেশি আর বোলিং করলে ইকনোমি রেট যতটা সম্ভব কম রাখা। প্রিয় খেলোয়াড় দেশের বাইরে ড্যারেন সামি আর দেশে মাহমুদ উল্লাহ। প্রিয় অলরাউন্ডারদের মতোই সফল হতে চান নিজেও।


মন্তব্য