বাবার উৎসাহেই ক্রিকেটার সানজিদা-332697 | খেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বুধবার । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৩ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৫ জিলহজ ১৪৩৭


বাবার উৎসাহেই ক্রিকেটার সানজিদা

৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বাবার উৎসাহেই ক্রিকেটার সানজিদা

পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল না সানজিদা ইসলামের। একদিন স্কুলে সানজিদা শুনলেন, খেলাধুলায় অংশ নিলে বেতন কমবে। তাই খেলাধুলায় আগ্রহী হয়ে উঠেছিলেন। স্কুলের হয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে অ্যাথলেটিকসসহ বিভিন্ন খেলাধুলায় অংশ নিতে নিতেই ক্রীড়াবিদ হিসেবে তাঁর ভিতটা তৈরি হয়ে গিয়েছিল। তারপর একসময় বিকেএসপিতে মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন, সেটা ২০০৯ সালের কথা। টিকেও গেলেন। কম বেতনে বিকেএসপিতে পড়ালেখা করেছেন সানজিদা, ক্রিকেটকে হাতিয়ার বানিয়েই বদলেছেন জীবন। পড়ছেন গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে, সোশিওলোজিতে। জাতীয় দলে খেলছেন, ঘুরে দেখতে পাচ্ছেন পৃথিবীর নানান দেশ, উন্নতি হয়েছে আর্থিক অবস্থারও। কিন্তু এরই মাঝে হারিয়েছেন প্রিয় বাবাকে, যাঁর উৎসাহেই ক্রিকেটার হওয়া রংপুরের এই মেয়ের। বিকেএসপিতে সৌম্য সরকার, এনামুল হকদের দেখেছেন অনুশীলনে। জাতীয় দলে খেলা লিটন দাশ ছিলেন সানজিদার সহপাঠী। এ জন্যই বোধ হয় উদ্বোধনী ব্যাটার হয়ে উঠেছেন সানজিদা। দল তাঁর কাছ থেকে চায় দারুণ একটা শুরু। টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরে ভারতের ঝুলন গোস্বামীর বলে চার মারার স্বপ্ন দেখা সানজিদার অভিষেক চীনে, পাকিস্তানের বিপক্ষে মেয়েদের এশিয়া কাপের ম্যাচ দিয়ে।

উদ্বোধনী ব্যাটার হিসেবে ব্যক্তিগত লক্ষ্য, সেরা ব্যাটারদের তালিকায় শীর্ষ পাঁচে জায়গা করে নেওয়া এবং অন্তত একটা হাফসেঞ্চুরি করা। প্রিয় খেলোয়াড় মুশফিকুর রহিম, কারণ তিনিও যে বিকেএসপিরই সাবেক ছাত্র! বাবার স্বপ্নকে সত্যি করতে খেলছেন সানজিদা, এখন তিনি পৃথিবীতে নেই। তবে সানজিদা জানেন, যেখানেই আছেন সেখানে নিশ্চয়ই মেয়েকে নিয়ে গর্ব করছেন বাবা।

মন্তব্য