৪০ দলের বিশ্বকাপের ভাবনা ইনফান্তিনোর-332348 | খেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


৪০ দলের বিশ্বকাপের ভাবনা ইনফান্তিনোর

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ফিফার নতুন সভাপতি জিয়ানি ইনফান্তিনো ৪০ দেশ নিয়ে বিশ্বকাপ করতে দারুণ আগ্রহী। সভাপতি হিসেবে ফিফা ডটকমকে দেওয়া প্রথম সাক্ষাত্কারেই এ ব্যাপারে জোর দিয়েছেন তিনি, ‘এটা আর গোপন নেই যে আমি ৪০ দেশ নিয়ে বিশ্বকাপ করার পক্ষে। এই সংখ্যাটা ফিফার মোট সদস্যের (২০৯) ১৯ শতাংশ। যা মোটেও বেশি নয়, মহাদেশীয় টুর্নামেন্টগুলোর তুলনায় তো নয়ই।’

সাবেক উয়েফা মহাসচিব ফিফার দায়িত্ব নিয়েছেন চার বছরের জন্য। এই সময়ের মধ্যে রাশিয়ার বিশ্বকাপ হয়ে যাবে, ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের বাছাইও শুরু হবে। ৩২ দল নিয়েই হওয়ার কথা এই দুটি আসর। তবে ২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক চূড়ান্ত করার কথা এ বছর, ইনফান্তিনোর সামনে সুযোগ থাকছে এই আসরে দলসংখ্যা বাড়িয়ে নেওয়ার। যদিও তিনি নিশ্চিত করে কিছু বলেননি, ‘এ জন্য বেশ কিছু বিষয় আমাদের খতিয়ে দেখার আছে। ক্যালেন্ডারে কী প্রভাব পড়বে, সেটিও একটি বিষয়। যদিও আমার মনে হয় না কোনো প্রভাব পড়বে। তার পরও খুব সতর্কতা ও গুরুত্বের সঙ্গেই বিষয়টি দেখা হবে, এর পরই আমরা এগোব।’ সভাপতি হিসেবে গত সোমবারই প্রথম জুরিখের সদরদপ্তরে গেছেন ইনফান্তিনো। সেদিনই ফিফা ডটকমের মুখোমুখি হয়ে এমন ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ও ভাবনা তুলে ধরেছেন তিনি। নিজেকে সংগঠক নয় বরং ফুটবলের একজন অন্ধ ভক্ত হিসেবেই ভাবতে পছন্দ করেন তিনি, ‘এভাবে ভাবলেই কেবল ফুটবলের প্রয়োজনীয়তাটা আমি সবচেয়ে ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পারব।’ ফুটবলের উন্নয়নে ঢালাওভাবে পরিকল্পনা সাজানোর পক্ষপাতী তিনি নন, ‘একেক দেশের একেক রকম প্রয়োজন, একেক রকম বাস্তবতা। সে অনুযায়ীই পরিকল্পনা সাজিয়ে আমাদের তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। ’ ফুটবলে প্রযুক্তির ব্যবহার নিয়েও তাঁর বক্তব্য স্পষ্ট, ‘প্রযুক্তি ব্যবহারের ব্যাপারে আমি খুবই ইতিবাচক। কিন্তু খেলার গতিময়তা যাতে নষ্ট না হয়, সেটা মাথায় রাখতে হবে।’

অন্যদিকে ফিফার সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে সাবেক খেলোয়াড়দের যুক্ত করার ব্যাপারে জোর দিয়েছেন তিনি, ‘কিংবদন্তিদের নিয়ে আমি একটি দল করতে চাই। যারা ফিফার হয়ে আবার আলো ছড়াবে, ফিফাকে আলোকিত করবে।’ ফিফা ডটকম

মন্তব্য