মিথুন নতুন তাই ঝুঁকিটা নিয়েছে-331977 | খেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


মুখোমুখি প্রতিদিন

মিথুন নতুন তাই ঝুঁকিটা নিয়েছে মাশরাফি

১৯৯৯ সালে নর্দাম্পটনে অবিস্মরণীয় পাকিস্তানকে হারানো ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় তিনি। গত বছর দেশের মাটিতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ হতে দেখেছেন মাঠে নয় ড্রেসিংরুমে বসে, ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ। পরশু এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আরেকটি পাকিস্তানবধের সাক্ষী মাহমুদ নিজের আবেগ নিংড়ে দিয়েছেন কালের কণ্ঠকে

৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



মিথুন নতুন তাই ঝুঁকিটা নিয়েছে মাশরাফি

প্রশ্ন : পাকিস্তানকে হারানোর আনন্দ কি আগের মতোই আবিষ্ট করে খালেদ মাহমুদকে? যদি ১৯৯৯ বিশ্বকাপ, গত বছর ৩-০তে জেতা এবং এশিয়া কাপের এই জয়—আপনার রেটিংয়ে কোনটা এগিয়ে থাকবে?

খালেদ মাহমুদ : দেখুন ঘটনাগুলো ভিন্ন ভিন্ন সময়ের। ’৯৯ বিশ্বকাপে আমরা আর ওরা কোথায় ছিল। আমাদের দলে তখন অনেক সিনিয়র ক্রিকেটার ছিল, কিন্তু নিজেদের সেভাবে প্রস্তুত করার সুযোগ ছিল না। তাই বলে পরের জয়গুলোকে খাটো করছি না। সব জয়ই স্পেশাল। ৩-০ ব্যবধানে পাকিস্তানকে ওয়ানডেতে হারানো চাট্টিখানি কথা নয়। তবে গতকালের (বুধবার) জয়টি অন্য কারণে স্পেশাল। আমরা টি-টোয়েন্টি খেলতে পারি না—এমন একটা কথা সবাই বলেন। আর এ জয়ে আমরা একটা টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছি। স্পেশাল তো বটেই।

প্রশ্ন : টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ রাতারাতি ভালো দল হয়ে উঠেছে বিশ্বাস করা এখনো কঠিন। তবু টানা শ্রীলঙ্কা এবং পাকিস্তানকে হারিয়েছেন দলটি। কিভাবে? স্রেফ প্র্যাকটিস আর পরিকল্পনা করেই কি এমন ওলট-পালট?

মাহমুদ : যুক্তিতে না টিকলেও ব্যাপারটা তা-ই ঘটেছে। কম দিন তো হয়নি জাতীয় দলের সঙ্গে খেলোয়াড়, কোচ এবং ম্যানেজার হিসেবে আছি। তবে গত দেড় মাস যে মানের প্রস্তুতি আর পরিকল্পনা হয়েছে, এমনটা আগে দেখিনি। প্রত্যেকটা জিনিস ধরে ধরে প্র্যাকটিস করিয়েছেন কোচ। মাশাল্লাহ ছেলেরাও জিনিসগুলো নিতে পেরেছে। মাঠে তারই প্রতিফলন দেখছেন।

প্রশ্ন : শুধু কি প্রস্তুতি নাকি ওয়ানডে ধারাবাহিকতা আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে ক্রিকেটারদের?

মাহমুদ : তা তো বটেই। যে ফরম্যাটে যে পর্যায়েই আপনি জিতুন, আপনাকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। এখনকার ছেলেরা হারব ভেবে মাঠে নামে না। এশিয়া কাপের আগে কেউ ভাবেনি আমরা একটার বেশি ম্যাচ জিতব। কিন্তু আমাদের বিশ্বাস ছিল। ভারতের কাছে হারের পরও মাশরাফি কিন্তু ফাইনাল খেলার কথাই বলেছিল।

প্রশ্ন : মোহাম্মদ আমির আগুনে বোলিং করছেন দেখেও স্বীকৃত ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিথুনকে রেখে মাশরাফি বিন মর্তুজা মাঠে এলেন যে!

মাহমুদ : মিথুন নতুন, তাই ঝুঁকিটা মাশরাফিই নিয়েছে। এমন মানসিকতাই এখনকার দলটাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

প্রশ্ন : দল টানা ভালো খেলে যাচ্ছে। নিজে ক্রিকেটার এবং অধিনায়ক ছিলেন, এখন ম্যানেজার। এই বিবর্তনটা কেমন লাগছে? আপনার নিজের রোলটাই-বা কতটুকু?

মাহমুদ : আপনি যে গ্রুপের সঙ্গে কাজ করছেন, তারা ভালো করলে আপনারও আনন্দ হবে, আমারও গর্ব হয়। নিজের স্পেসিফিক কাজগুলো করি, সঙ্গে সবার কমফোর্টের জন্য যদি বাড়তি পরিশ্রমও করতে হয় আমার আপত্তি নেই।

মন্তব্য