kalerkantho


এই গ্লানি নিজের ভেতরে

নাসির আহমেদ

৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বনের ভেতর দিয়ে যেতে যেতে টের পাই—ভয়

বন্য হাতির হিংস্র তাণ্ডব ছড়িয়ে দিচ্ছে রক্তের ভেতর

আসলে এ বনে কোনো বাঘ কিংবা হাতি নেই

এ কথা জেনেও গ্রামে নির্জন বনের পথে এ রকমই হয়।

 

শৈশবের সেই ভয় সেই স্মৃতি অরণ্য-জঙ্গল

কিছুই কোথাও নেই, গ্রাম আজ শহরের কাছে

হাত পেতে আছে কিছু নাগরিকতায় পুষ্ট হতে

আমার স্নায়ুতে শুধু সেই বুনোপথে হাতি ডাকে।

 

একেই বিভ্রম বলে বয়সী স্মৃতির তীব্র টান

ডাকনাম ধরে ডাক দিলে চলে যেতে হয় ফেলে আসা পথে

একদল দস্যি ছেলে ঝাঁপ দিচ্ছে উঁচু ডাল থেকে

নিচে পুকুরের জলে, মনে ভাসে কবেকার ছবি!

 

সেই আমি ফিরে যাই নিজের ভেতরে একা একা

দেখা হয় রাজহাঁস, বাঁশঝাড়, মেঠোপথ আর বুনো ঝোপ;

নিসর্গ তোমার জন্য এ শহরে হা-পিত্যেশ নেই

আমার নিজের ভুলে ভুল করে এই দীর্ঘশ্বাস।

 

তোমাকে তোমার মতো এমন অপূর্ব স্নিগ্ধ আর ছায়াময়

যদি বুঝে নেওয়া যেত উচিত সময়ে, তাহলে কি এই গ্লানি হয়!



মন্তব্য