kalerkantho

বিশ্বসাহিত্য

রিয়াজ মিলটন   

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



পেন পিন্টার পুরস্কার গ্রহণ আদিচির

‘শিল্প রাজনীতিকে আলোকিত করতে পারে। রাজনীতিকে মানবিক করতে পারে। শিল্প পারে সত্যকে উদ্ভাসিত করতে। কিন্তু কোনো কোনো সময় এটাই যথেষ্ট নয়। মাঝেমধ্যে রাজনীতিকে অবশ্যই রাজনীতিসচেতন হতে হয়। অথচ আজকের পশ্চিমা অনেক দেশেই এটা চোখে পড়ে না। কিন্তু জরুরি। হ্যারল্ড পিন্টার একেই বলেছেন, বিপুল মিথ্যার সমাহার, যা আমাদের গেলানো হচ্ছে।’ লেখকদের রাজনৈতিক সচেতনতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে এ কথা বলেন নাইজেরিয়ার ঔপন্যাসিক চিমামান্দা এনগোজি আদিচি। আদিচি গত মঙ্গলবার লন্ডনে ব্রিটিশ লাইব্রেরিতে এক অনুষ্ঠানে এ বছরের ব্রিটেনের পেন পিন্টার পুরস্কার গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই জানতে হবে সত্য কী। আমাদের অবশ্যই মিথ্যাকে মিথ্যাই বলতে হবে।’ প্রয়াত নোবেলজয়ী নাট্যকার হ্যারল্ড পিন্টারের সম্মানে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। পুরস্কার কমিটির মতে, আদিচি তেমনই সাহসী ও স্পষ্টভাষী লেখক, যেমনটা পছন্দ করতেন হ্যারল্ড। ২০০৫ সালে ‘শিল্প, সত্য ও রাজনীতি’ শিরোনামের নোবেল বক্তৃতায় হ্যারল্ড বলেছিলেন, লেখক হবেন তেমন সাহসী, যিনি নিষ্ঠুর পৃথিবীর দিকে ‘অপ্রতিহত ও অবিচলিত’ দৃষ্টি হানবেন এবং আমাদের জীবন ও সমাজের প্রকৃত সত্য তুলে ধরতে এক তীব্র বুদ্ধিবৃত্তিক সমাধান উপস্থাপন করবেন। তাঁর সেই ধারণার প্রকাশ যেসব লেখকের লেখায় পাওয়া যায়, তাঁদেরই পেন পিন্টার পুরস্কার দেওয়া হয়। বেশ কিছু আন্তর্জাতিক পুরস্কারজয়ী আদিচির প্রথম উপন্যাস ‘পার্পল হিবিসকাস’ ২০০৪ সালে কমনওয়েলথ রাইটারস পুরস্কার পায়। ‘হাফ অব আ ইয়েলো সান’ উপন্যাসটি পায় ২০০৬ সালে অরেঞ্জ পুরস্কার।

ইরানি কবি জিলা সুইডিশ একাডেমির সদস্য নির্বাচিত

ইরানি কবি জিলা মোসায়েদ সুইডিশ একাডেমির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। সুইডিশ একাডেমিই সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার দিয়ে থাকে। গত বছর যৌন হয়রানির অভিযোগের জেরে একাডেমির ১৮ সদস্যের মধ্যে আট সদস্যের পদত্যাগের কারণে এ বছরের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার স্থগিত ঘোষণা করা হয়। ইরানে জন্ম নেওয়া ৭০ বছর বয়সী জিলা মোসায়েদ সুইডেনের নাগরিক। ইরান সরকারের কট্টর সমালোচক এই নারী ১৯৮৬ সাল থেকে সুইডেনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে রয়েছেন। তিনি সুইডিশ ও ফারসি উভয় ভাষায় লিখে থাকেন। জিলার সঙ্গে সুইডেনের সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এরিক রুনেসনকেও একাডেমির সদস্য নির্বাচিত করা হয়েছে। এর ফলে একাডেমির সক্রিয় সদস্যের সংখ্যা এখন ১২-তে উন্নীত হলো এবং কোরামও পূর্ণ হলো। গত বছর একাডেমির সদস্য কবি ক্যাটারিনা ফ্রস্টেনসনের স্বামী জ্যঁ-ক্লদ আহনুর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলে বেশ কয়েকজন সদস্য একযোগে পদত্যাগ করেন। এর ফলে একাডেমির কোরাম ভেঙে যায়। কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ন্যূনতম যতজন সদস্য থাকা প্রয়োজন, তা একাডেমির ছিল না। তাই এ বছর সাহিত্যের নোবেল পুরস্কারও স্থগিত করা হয়। জিলা মোসায়েদকে সুইডিশ লেখক কারস্টিন একম্যানের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে। কারস্টিন একাডেমির সঙ্গে সম্পর্ক ছাড়েন ১৯৮৯ সালে। ইরান সরকার ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ লেখার কারণে সালমান রুশদির মৃত্যুদণ্ডের ফতোয়া জারি করলে সুইডিশ একাডেমি এর নিন্দা জানাতে অস্বীকার করে। এর প্রতিবাদে কারস্টিন সুইডিশ একাডেমির সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করেন।

 

বিবিসি ছোটগল্পের পুরস্কার ইনগ্রিদের

যে বাবাকে কখনো দেখেইনি তার ছেলে, মৃত্যুপথযাত্রী সেই বাবার খবর শুনে তাকে দেখতে যাওয়ার আকুতি ফুটে উঠেছে ত্রিনিদাদের লেখক ইনগ্রিদ পারসাউদের ছোটগল্প ‘দ্য সুইট শপ’-এ। এ গল্পটিই জিতেছে এ বছরের বিবিসি ন্যাশনাল শর্ট স্টোরি অ্যাওয়ার্ড। বিচারক ও ইতিপূর্বে এই পুরস্কারজয়ী লেখক কে জে অর গল্পটি সম্পর্কে মন্তব্য করেন, এটি অত্যন্ত ‘স্পর্শকাতর, উচ্ছ্বাসপূর্ণ, মর্মস্পর্শী ও রসবোধে পরিপূর্ণ’। ‘দ্য সুইট শপ’ ইনগ্রিদের প্রথম ছোটগল্প। এটি গত বছর কমনওয়েলথ শর্ট স্টোরি প্রাইজ জেতে। বিবিসি ন্যাশনাল শর্ট স্টোরি অ্যাওয়ার্ড একক ছোটগল্পের জন্য দেওয়া বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার হিসেবে বিবেচিত। এর আগে ১৫ হাজার পাউন্ড অর্থমূল্যের এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত পাঁচটি গল্পের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়। ওই তালিকার অন্য গল্পগুলো ছিল—সারাহ হলের ‘সাডেন ট্রাভেলার’, কেরি অ্যান্ড্রুর ‘টু বিলং টু’, কায়ারে ল্যাডনারের ‘ভ্যান রেনসবার্গ’স কার্ড’ এবং নেল স্টিভেনসের ‘দ্য মিনিটস’। পুরস্কারের জন্য এ বছর প্রায় আট শ গল্প জমা পড়ে বিচারক কমিটির কাছে। এর মধ্য থেকে পাঁচটি গল্পের সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করা হয়। বিবিসি ছোটগল্পের ১৩ বছরের ইতিহাসে সংক্ষিপ্ত তালিকায় এবার পঞ্চমবারের মতো সব নারী লেখক স্থান করে নেন।

 

 



মন্তব্য