kalerkantho


হবিগঞ্জে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজে শুভসংঘের পাঠচক্র

শাহ ফখরুজ্জামান   

৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



হবিগঞ্জে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজে শুভসংঘের পাঠচক্র

পাঠচক্রে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অতিথিরা

মেধাবীরাই সুযোগ পান মেডিক্যাল কলেজে অধ্যয়নের। অনেকের ধারণা, তাঁরা শুধু লেখাপড়া নিয়েই ব্যস্ত থাকেন, সহশিক্ষা কার্যক্রমে তাঁরা পিছিয়ে। এই ধারণা ভুল প্রমাণ করেছেন হবিগঞ্জে সদ্য চালু হওয়া শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীরা। গত ২১ ফেব্রুয়ারি বুধবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কালের কণ্ঠ শুভসংঘ আয়োজিত পাঠচক্রে একাডেমিক পড়াশোনার বাইরে নিজেদের মেধা জানান দিয়েছেন তাঁরা।

সেদিন দুপুরে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাসে শুভসংঘের অনুষ্ঠানটি ছিল এই ক্যাম্পাসেরও প্রথম অনুষ্ঠান। পাঠচক্র ছাড়াও শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস নিয়ে বক্তৃতা, গান ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার হিসেবে তুলে দেওয়া হয় মহামূল্যবান বই। পুরস্কারপ্রাপ্তরা জানান, এই পুরস্কার তাঁদের জীবনে প্রথম। বইগুলো তাঁদের হাতে তুলে দেন কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আবু সুফিয়ান।

ডা. আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ও শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মুজিবুর রহমান পলাশ, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান, কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধি শাহ ফখরুজ্জামান, শুভসংঘের সভাপতি নাট্যকার রুমা মোদক, শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. জাহাঙ্গীর খান, সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রাণকৃষ্ণ বসাক, প্রভাষক ডা. পঙ্কজ কান্তি গোস্বামী, ডা. মো. শাহীন ভুঁইয়া, ডা. তাজুল ইসলাম, ডা. কুদ্দুছ মিয়া, ডা. এস এম তারেক আল হোসাইনী, ডা. মোহাম্মদ মুখলেছুর রহমান, মেডিক্যাল কলেজের স্টাফ সজল কান্তি দেব, মোস্তাফিজুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, রফিক হোসেন, মোজাহার আলী খান ও সূর্যলাল দাস।

প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন দেবশ্রী তালুকদার সৃষ্টি। দ্বিতীয় হন সদরুন্নেসা কবির নাভিলা এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করেন মো. আবদুল্লাহ যুবায়ের। আরো যাঁরা পুরস্কার পান তাঁরা হলেন—শিউলি খাতুন, হাসিনা আক্তার, মো. জাহিদ হাসান, ইফ্ফাত আরা শৈলী, সৌহার্দ্য বিশ্বাস ও অমর জীবন চাকমা।


মন্তব্য