kalerkantho

কবিতা

মনে পড়ে গেলে

সাদিক আল আমিন

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মনে পড়ে গেলে

অরণ্যময় সবুজের ওপর রৌদ্রাভ ছায়া

কিংবা স্যাঁতসেঁতে ভেজা গলির মাথায় তোমার ঘোমটা দেওয়া মুখ

আমি কবে হারিয়ে গিয়েছিলাম মনে আছে?

বুকের মাঝে অঞ্জনের গান নিয়ে একপা-দুপা করে

তিনতলার চিলেকোঠায় এসে জুটতাম

লাল বিকেলে, পায়রা হয়ে!

আমি কবে হারিয়ে যাব অনুমান করতে পারো?

রেস্তোরাঁর কোণের টেবিলটা দেখো,

পড়ে আছে কী নির্জন ফাঁকা হয়ে! কী নিঃসঙ্গ!

দুজন আমরা গাড় লিকারের চা খেতে খেতে

ঢলে পড়তাম পরস্পরের ওপর

মনে আছে তোমার?

আচ্ছা সকাল, তোমার গন্ধটা আর পাই না কেন বলতে পারো?

তুমি কি বর্তমানে অন্য কারো?

নাকি জীবনের শেষ প্রান্তে তোমার অনুভূতিগুলো আটকে গেছে?

যেমনটি কয়েক যুগ পরে তুমি আর তুমি থাকবে না

কেঁচো, পোকা, সাপ ঢুকে তোমার ভেতরে

খুবলে খুবলে খাবে তোমার চাওয়া-পাওয়া,

যত্নে রাখা বর্ণিল চেতনা আর ভালোবাসাও।

আকস্মিক কোনো বিকেলে,

তোমার ঘুম ভেঙে গেলে হঠাৎ

হাই তুলতে তুলতে উঠে এসো চিলেকোঠায়;

বৃদ্ধ রৌদ্র ছোঁবে তোমার মুখ

চেনা এক ধবধবে শাদা পায়রা উড়ে এসে বসবে তোমার কাঁধে।

মনে পড়ে আজ, বহু দিন হলো তোমার কাঁধে মাথা রাখিনি!


মন্তব্য