kalerkantho


তরুণরাই গড়বে স্বপ্নের বাংলাদেশ

জাকারিয়া জামান   

৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



তরুণরাই গড়বে স্বপ্নের বাংলাদেশ

নবীনবরণ অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষকদের সঙ্গে আইইউবিএটি শুভসংঘের বন্ধুরা

তারুণ্যের উচ্ছ্বাসে ভরা সবুজ ক্যাম্পাসটি সেদিন নবীনদের পদচারণে মুখরিত ছিল। নতুন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিতে বর্ণাঢ্য আয়োজন করেছিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজির (আইইউবিএটি) বন্ধুরা।

নবীনদের আগামীর পথচলা আরো সুন্দর করতে তাঁদের দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন শিক্ষকরা।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি আইইউবিএটিতে অনুষ্ঠিত এই নবীনবরণ উৎসবের আয়োজন করে শুভসংঘ ও ডিবেটিং ফোরাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত এই নবীনবরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডক্টর আব্দুল জব্বার, প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর মনিরুল ইসলাম, ভাষাশিক্ষা বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর মমতাজুর রহমান এবং শিক্ষক ও শুভসংঘের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি সাদেকুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানের শুরুতে শিক্ষার্থীদের ফুল ও চকোলেট দিয়ে বরণ করেন শুভসংঘ ও ডিবেটিং ক্লাবের বন্ধুরা। এরপর স্বাগত বক্তব্যে সাদেকুল ইসলাম বলেন, তোমরা তরুণ শিক্ষার্থীরাই অনাগত সময়ের দূত। নিজেদের সেভাবেই গড়ে তুলতে হবে, যেভাবে সমাজ ও পরিবার চায়। দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য কিছু করতে হবে। এ জন্য শিক্ষাজীবন থেকেই নানা ধরনের সামাজিক এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে হবে। অধ্যাপক আব্দুল জব্বার নিজের শিক্ষাজীবন থেকে শিক্ষামূলক কিছু অভিজ্ঞতা তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের বলেন, ‘জীবনের সুবর্ণ সময় হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়জীবন।

এ সময়ের প্রতিটি পদক্ষেপই বলে দেয় ভবিষ্যত্টা কেমন হবে। ’

তারুণ্যের শক্তির কথা উল্লেখ করে অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকে আজ পর্যন্ত সব কাজে ছাত্রসমাজের বীরত্বপূর্ণ অংশগ্রহণ আছে। আজকের এই তরুণ প্রজন্মই একদিন কাঙ্ক্ষিত সোনার বাংলা উপহার দেবে। এ ছাড়া অধ্যাপক মমতাজুর রহমান তাঁর বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমে শুভসংঘ ও ডিবেটিং ফোরামের নানা তত্পরতার প্রশংসা করেন। শিক্ষার্থীদের হয়ে বক্তব্য রাখেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের মো. মুজাহিদুল ইসলাম এবং যন্ত্রপ্রকৌশল বিভাগের হৃদয় আহমেদ।

অনুষ্ঠান শেষে সমাজ ও দেশসেবার মনোভাব নিয়ে ভবিষ্যত্জীবনে এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন নবীনরা।


মন্তব্য