kalerkantho

26th march banner

অসহায় সাংবাদিক পরিবারের পাশে কিরণ

২০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অসহায় সাংবাদিক পরিবারের পাশে কিরণ

নিহত সাংবাদিকের পরিবারের সঙ্গে হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ

“খুলনা থেকে প্রকাশিত ‘দৈনিক অনির্বাণ’ পত্রিকার ডুমুরিয়া প্রতিনিধি ছিলেন নহর আলী। ২০০০ সালের ২১ এপ্রিল চরমপন্থীদের হামলায় নিহত হন তিনি। নহর আলী নিহত হওয়ার পর তাঁর পরিবারে নেমে আসে চরম আর্থিক দুর্ভোগ। দুই ছেলে আর দুই মেয়েকে নিয়ে যেন অথই সাগরে পড়েন নহর আলীর স্ত্রী আসমানী বেগম। ভাইবোনদের মুখে খাবার তুলে দিতে বড় ছেলে রিপন রিকশা চালাতে শুরু করেন। অনেক সময় লজ্জায় মুখ ঢেকে রিকশা চালাতেন রিপন। ২০১৩ সালে ঢাকায় এসে রিকশা চালানো শুরু করেন রিপন। ” এটা কোনো গল্প নয়। একটি অসহায় পরিবারের দুঃখময় জীবনের করুণ কাহিনী।

বিষয়টি চোখে পড়ে মেরিট ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণের। দায়িত্ব তুলে নেন অসহায় সাংবাদিক পরিবারটির। সিঙ্গাপুরের হুন্দাই কনস্ট্রাকশন কম্পানিতে ভালো চাকরি দিয়ে নহর আলীর ছেলে রিপনকে বিদেশে পাঠিয়েছেন তিনি। থাকা-খাওয়াও সেখানে ফ্রি করে দিয়েছেন। এখন মাসে ৭৫০ সিঙ্গাপুরি ডলার বেতন পায় রিপন। রিপনের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় তারা সবাই এখন খুব ভালো আছেন।

এ প্রসঙ্গে হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, ‘আমাদের সবাইকে আরো মানবিক হতে হবে, বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। রিপন আজ ভালো উপার্জন করে তার পরিবারে নতুন আশার সূচনা করেছে—এটা খুবই আনন্দের। ’ এরপর প্রতিবছর তাঁর প্রতিষ্ঠান থেকে পাঁচজন অসহায় লোককে বিদেশে বিনা খরচে পাঠানোর প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।


মন্তব্য