খুদে শিশুদের ছবিতে নদীর করুণ মৃত্যু-335205 | শুভসংঘ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


কক্সবাজারে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

খুদে শিশুদের ছবিতে নদীর করুণ মৃত্যু

মো. মনির হোসেন   

১৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



খুদে শিশুদের ছবিতে নদীর করুণ মৃত্যু

নদীবিষয়ক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় উপস্থিত অতিথিরা

‘আমরা নদীপাড়ের সন্তান। নদীই আমাদের জীবন। নদীই আমাদের অবলম্বন। নদীকে কেন্দ্র করেই আমাদের বেঁচে থাকা। আর সেই নদীর ছবি আঁকতে খুবই ভালো লাগে। পুরস্কার তো সেই ভালো লাগারই স্বীকৃতি। আয়োজকদের ধন্যবাদ আমার মনোছবির ভাবনা প্রকাশের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য।’ এভাবেই অভিব্যক্তি প্রকাশ করল নদীবিষয়ক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ‘ক’ গ্রুপের প্রথম স্থান অর্জনকারী কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষার্থী হিমাদ্রি পাল।

গত ১২ ফেব্রুয়ারি কালের কণ্ঠ শুভসংঘ ও বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দল আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় কক্সবাজারে। কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে পুরস্কার বিতরণ করেন নদী পরিব্রাজক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. মনির হোসেন। প্রতিযোগিতা সমন্বয়কারী সরওয়ার আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট রমিজউদ্দিন আহমেদ, সাংবাদিক ও কলামিস্ট বিশ্বজিত সেন, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের কক্সবাজার জেলা শাখার আহ্বায়ক বিপ্লব কান্তি দে, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আনছার হোসেন, দৈনিক ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি মো. জুনায়েদ, বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইসলাম মাহমুদ, কক্সবাজার আর্ট একাডেমির পরিচালক মো. ফেরদৌস, নদী পরিব্রাজক দল কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল আলিম নোবেল, সাধারণ সম্পাদক মিনার হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মনসুর, এশিয়ান টিভির প্রতিনিধি আরজ ফারুক, কক্সবাজার টাইমসের নিজস্ব প্রতিবেদক মো. মনির প্রমুখ।

কক্সবাজারের ২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয় কালের কণ্ঠ শুভসংঘ ও বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দল আয়োজিত ‘এসো নদীর ছবি আঁকি’র আয়োজনে। এর মধ্যে বিচারকদের বাছাইকৃত ৩০টি ছবিকে পুরস্কৃত করা হয়।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অ্যাডভোকেট রমিজউদ্দিন আহমেদ বলেন, নদী ভাবনা মানে অস্তিত্বের ভাবনা, নিজের টিকে থাকার এবং নিজেকে সমৃদ্ধ করার ভাবনা। আর এ ভাবনায় যাঁরা একাত্ম হয়েছেন এবং উদ্যোগ নিয়েছেন সবার হাত দিয়েই নদীর জীবন কিছুটা হলেও রক্ষা পায়। বিশ্বজিত সেন বলেন, সভ্যতা-সংস্কৃতি আর কৃষ্টির সৃষ্টি নদী থেকে। আর এ নদীকে ভাবনায় নিয়ে যাঁরা ‘এসো নদীর ছবি আঁকি’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছেন কক্সবাজারবাসীর পক্ষ থেকে তাঁদের অভিনন্দন জানাই।

কালের কণ্ঠ শুভসংঘের কক্সবাজার জেলা শাখার আহ্বায়ক বিপ্লব কান্তি দে বলেন, প্রতিযোগীদের আঁকা ছবির মধ্যে নদীর দূষণ, দখল, ভরাট আর নান্দনিকতা যেভাবে ফুটেছে এটাই হয়তো তাদের নীরব প্রতিবাদ। এর মাধ্যমে জেগে উঠুক আগামী প্রজন্ম।

মন্তব্য