kalerkantho


বাল্যবিয়ে থেকে বাঁচল ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

কাউখালী (রাঙামাটি) প্রতিনিধি   

১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বাল্যবিয়ে থেকে বাঁচল উপজেলার ঘাগড়া বাজার এলাকার ১০ বছর বয়সী ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিনহাজুর রহমানের হস্তক্ষেপে এ বিয়ে বন্ধ হয়। ঘাগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জগদীশ চাকমা ও ইউপি সদস্য শীবমনি চাকমা এতে সহায়তা করেন।

জানা যায়, ঘাগড়া ইউনিয়নের ঘাগড়াবাজার এলাকার বাসিন্দা রাজা মিয়া সওদাগরের ছেলের সাথে রাঙামাটি সদর উপজেলার রিজার্ভবাজার এলাকার ওই মেয়ের পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়। মেয়েটির বিয়ের বয়স না হওয়ায় রাঙামাটি থেকে বিয়ে দিতে সমস্য হতে পারে ভেবে ঘাগড়া আনসার ক্যাম্প এলাকায় আত্মীয়ের বাড়িতে এনে বিয়ের আয়োজন করা হয়। বিয়ের দিন ধার্য করা হয় সোমবার। মঙ্গলবার মেহেদি অনুষ্ঠানের রাতে স্থানীয় এক সচেতন ব্যক্তি বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীদের জানালে তাঁরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানান। পরে মেহেদি রাতেই এ বিয়ে বন্ধ করা হয়।

ঘাগড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জগদীশ চাকমা বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে জন্মনিবন্ধন দেখতে চাইলে তাঁরা প্রথমে ২০০০ সালে জন্ম দেখিয়ে হুবহু নকল করে একটি জন্ম নিবন্ধন দেখান। সেটা আমরা অনলাইনে যাচাই করে কোনো তথ্য না পাওয়ায় মূলকপি দেখানোর জন্য চাপ দিই। পরবর্তীতে আমরা জানতে পারি মেয়ের জন্ম ২০০৮ সালে।’



মন্তব্য