kalerkantho


চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক

নতুন মাতামুহুরী সেতুর বেসক্যাম্প স্থাপন

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

১১ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বহুল প্রতীক্ষিত চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার চিরিঙ্গায় ছয় লেনের মাতামুুহুরী সেতুর নির্মাণকাজের প্রাথমিক প্রস্তুতি হিসেবে বেসক্যাম্প স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। শনিবার বিকেলে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম। উপস্থিত ছিলেন সেতু নির্মাণের কার্যাদেশ পাওয়া স্পেকট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের স্থানীয় কো-অর্ডিনেটর নূরে বশির সয়লাব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এম আর চৌধুরী, প্রেস ক্লাবের কার্যকরী সভাপতি ছোটন কান্তি নাথ প্রমুখ।

চকরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাফর আলম বলেন, ‘দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ছয় লেনের মাতামুহুরী সেতুসহ মহাসড়কের চার সেতুর মূল অবকাঠামো নির্মাণকাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার প্রাথমিকভাবে মাতামুহুরী সেতুর নির্মাণকাজের জন্য বেসক্যাম্প স্থাপনকাজের উদ্বোধন হল।’

জানা গেছে, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার চিরিঙ্গাস্থ ছয় লেনের মাতামুহুরী সেতুর নির্মাণযজ্ঞ শুরু করতে ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ার যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করা হয় ইতোপূর্বে। ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর প্রক্রিয়াও চলমান রয়েছে।

চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিস সূত্র জানায়, ছয় লেনের মাতামুহুরী সেতু নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক ইতোমধ্যে ভূমি মালিকদের তালিকা প্রণয়ন এবং প্রয়োজনীয় কর্ম সম্পাদন করা হয়েছে। সে অনুযায়ী সেতুটি তিন মৌজার জমির ওপর দিয়ে নির্মিত হবে। এর মধ্যে চিরিঙ্গা, কাকারা (হালকাকারা অংশ) ও লক্ষ্যারচর মৌজার জমি পড়েছে।

উল্লেখ্য, ব্যস্ততম চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার মাতামুহুরী, পটিয়ার ইন্দ্রপুল, চন্দনাইশের বরগুনি ও দোহাজারীর সাঙ্গু সেতুর নির্মাণকাজে অর্থায়ন করছে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা)। এসব সেতুর নির্মাণকাজ বাস্তবায়ন করবে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এই চার সেতুর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০৮ কোটি টাকা। আর ইতোমধ্যে এসব সেতুর নির্মাণকাজ বাস্তবায়নের জন্য স্পেকট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স লি. নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে চূড়ান্ত কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে।



মন্তব্য