kalerkantho

আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল

দ্বিতীয় রাজধানী ডেস্ক   

১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘিরে বিএনপির ‘নাশকতা’ ঠেকাতে গতকাল বিভিন্ন স্থানে সমাবেশ, আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠন। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধির পাঠানো খবরে :

নোয়াখালী : সকাল থেকে জেলা শহরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতি ছিল। রায় ঘোষণার পর জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। বক্তব্য দেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহিন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান নাসের, নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু, আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুর রহমান জাবেদ, নাসির উদ্দিন, জেলা যুব লীগের আহবায়ক ইমন ভট্ট, যুগ্ম আহ্বায়ক একরামুল হক বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান, সাধারণ সম্পাদক আদনান প্রমুখ।

সীতাকুণ্ড : অবস্থান কর্মসূিচ পালন করে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠন। উপজেলার ১০ ইউনিয়নে পৃথক পথসভা, বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন সংসদ সদস্য দিদারুল আলম, উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আল মামুন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল বাকের ভূঁইয়া, পৌরমেয়র বদিউল আলম প্রমুখ।

আনোয়ারা : সকাল থেকে আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে চাতরী চৌমুহনী বাজারে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে আনন্দ মিছিল বের হয়। পরৈকোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ওসমান গণি রাসেলের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মো. শামসুদ্দিন উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, মিলন কান্তি ধর, জাফর উদ্দিন চৌধুরী, ফজলুল করিম চৌধুরী বাবুল, মহিউদ্দিন চৌধুরী টিপু, নজরুল ইসলাম, হাফেজ আবুল হাসান কাসেম, নজরুল আনসারী মুজিব, চেয়ারম্যান জানে আলম, ইয়াছিন হিরু, এম এ কাইয়ুম শাহ্, আলমগীর আজাদ প্রমুখ। পরে আনন্দ মিছিল চাতরী চৌমুহনী বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

পটিয়া: উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় প্রাঙ্গণ ও শান্তিরহাট এলাকায় মিষ্টি বিতরণ করা হয়। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, আবদুল খালেক চেয়ারম্যান, ফজলুল হক, আলমগীর আলম, এম এন এ নাছির, নাজিম উদ্দিন পারভেজ প্রমুখ।

কর্ণফুলী : উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সকাল থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠন অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। পরে আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। মইজ্জ্যারটেক আখতারুজ্জামান চত্বরে কমসূচিতে উপস্থিত ছিলেন কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সিদ্দিক আহমদ, দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমেদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ। এদিকে ফকিরনীর হাট এলাকায় জুলধা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সভাপতি আমির আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ও জুলধা ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমেদ প্রমুখ।

সন্দ্বীপ : গ্রেনেড হামলার রায়কে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায়

মঙ্গলবার থেকে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ ছিল তত্পর। ওই রাতে পুলিশ বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে সাত জনকে আটক করেছে বলে জানান অফিসার ইনচার্জ মো. শাহজাহান। আটককৃতরা সবাই বিএনপির কর্মী বলে জানা গেছে।

এদিকে বুধবার রায় ঘোষণার পর পর সন্দ্বীপ উপজেলা সদরে ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দিন মিশনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ মিছিল বের করে। মিছিলটি শহর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়।

 

 



মন্তব্য