kalerkantho


গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ

আহত দম্পতির মৃত্যু, একমাত্র ছেলের অবস্থাও আশঙ্কাজনক

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

২৪ মে, ২০১৮ ০০:০০



পেকুয়ায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ দম্পতি পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে মারা গেছেন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মঙ্গলবার কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে মারা যান তাঁরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই হাসপাতালে তাঁদের ১০ বছরের একমাত্র সন্তানও চিকিৎসাধীন আছে।

গ্যাস সিলিন্ডারের আগুনে মারা যাওয়া দিনমজুরের নাম মোহাম্মদ হোসাইন (৪০) ও তাঁর স্ত্রী দিলোয়ারা বেগম (৩২)। তাঁদের বাড়ি পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের পানপাড়ায়।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি থাকা তাঁদের সন্তানের নাম ওয়াহিদুল ইসলাম নয়ন (১০)।

স্থানীয়রা জানান, ১৭ মে উজানটিয়া ইউনিয়নের পানপাড়া গ্রামের বাড়িতে ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে গেলে অগ্নিদগ্ধ হন স্বামী-স্ত্রী। এ সময় তাঁদের চিত্কারে এগিয়ে গেলে দগ্ধ হয় সন্তান ওয়াহিদুল ইসলাম নয়নও।

মারা যাওয়া দম্পতির এক নিকটাত্মীয় জানান, ঘরে রান্নার কাজে মোহাম্মদ হোসাইন এলপি গ্যাসের সিলিন্ডার ব্যবহার করে আসছেন দীর্ঘদিন। স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাঠিয়ে দেন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার বিকেলে স্বামী এবং রাতে স্ত্রী মারা যান।

গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে একসঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘তাঁদের একমাত্র সন্তানের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনায় দিনমজুর দম্পতির মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।’



মন্তব্য