kalerkantho

বর্ণিল বর্ষবরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



বর্ণিল বর্ষবরণ

ডিসি হিলে নৃত্য পরিবেশনা। ছবি : রবি শংকর

ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে নগরের ডিসি হিল ও সিআরবি শিরিষতলায় এবারও গানে গানে স্বাগত জানানো হল নতুন বছরকে। জীর্ণ পুরাতনকে বিদায় জানিয়ে সম্ভাবনার নতুন দিনের প্রত্যাশায় প্রাণের উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে পুরো বন্দরনগর। শনিবার ডিসি হিল প্রাঙ্গণে ছিল বর্ষবরণের ৪০তম অনুষ্ঠান। সিআরবি পূর্ণ করেছে এক দশক। উৎসবে প্রাণের টানে ঘর থেকে বের হন হাজার হাজার মানুষ। বর্ষবরণ অনুষ্ঠান ঘিরে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ গ্রহণ করে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নববর্ষ উৎসব অনুষ্ঠিত হয় বহদ্দারহাট স্বাধীনতা পার্কে। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের উদ্যোগে ফিশারিঘাট কর্ণফুলী নদীর তীরবর্তী এলাকায় বৈশাখী মিলনমেলার আয়োজন করা হয়। শিল্পকলা একাডেমি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা ইনস্টিটিউট, মহিলা সমিতি স্কুল চত্বর, ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা বিদ্যালয় চত্বর ও পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকতে ছিল বৈশাখী উৎসব। এছাড়া নগর ও জেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-সাংস্কৃতিক সংগঠন বৈশাখী উৎসবের আয়োজন করে। সর্বত্র ছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

পহেলা বৈশাখ নগরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা ইনস্টিটিউটের ঐতিহ্যবাহী মঙ্গল শোভাযাত্রা  ।   ছবি : রবি শংকর

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারু ও কারুকলা ইনস্টিটিউট বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ কে স্বাগত জানিয়ে সকালে বের করে মঙ্গল শোভাযাত্রা। এছাড়া ডিসি হিলসহ বিভিন্ন এলাকায়ও পহেলা বৈশাখকে স্বাগত জানিয়ে শোভাযাত্রা বের করা হয়।

ডিসি হিলের উৎসব ঘিরে মোমিন রোড, নন্দনকানন, আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ সড়ক, চেরাগি পাহাড় এলাকায় বসে বৈশাখী মেলা।

নগরের সিআরবি শিরিষতলায় বলীখেলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সিআরবিতে সকাল সাতটায় ‘এসো হে বৈশাখ এসো এসো’ গানটি দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন ভায়োলিনিস্ট চিটাগাংয়ের শিল্পীরা। বিকেলে সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ে সাহাবউদ্দীনের বলীখেলায় চ্যাম্পিয়ন হন কুমিল্লার শাহজালাল বলী। ফাইনাল রাউন্ডের খেলায় কক্সবাজারের উখিয়ার কলিমউল্লাহ বলীকে হারিয়ে দেন তিনি। বলীখেলায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা ৭০ জন অংশ নিয়েছেন। খেলা পরিচালনা করেন সাবেক কাউন্সিলর মো. মালেক। বলীখেলার পুরস্কার বিতরণ করেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। খেলা উদ্বোধন করেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক। সিআরবি এলাকায় বৈশাখী উৎসব ও বলীখেলাকে ঘিরে বসে বৈশাখী মেলা।

বৈশাখী উৎসবের আয়োজন করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। বহদ্দারহাট স্বাধীনতা পার্কে এ উৎসবে কাপাসগোলা সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের পরিবেশনায় ‘এলো বৈশাখ বৈশাখ’ গান দিয়ে শুরু হয় দিনব্যাপী অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। সভাপতিত্ব করেন কাউন্সিলর সেলিম উল্লাহ বাচ্চু। উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন, আবদুল কাদের, সালেহ আহমদ চৌধুরী, সলিম উল্লাহ বাচ্চু প্রমুখ।

চট্টগ্রাম মডেল পাবলিক স্কুল ও কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের অনুষ্ঠান।   ছবি : কালের কণ্ঠ

দিনভর কবিগান, আলোচনা, নৃত্যানুষ্ঠান ও লোকজ ঐতিহ্যের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে মোমিন রোডস্থ চট্টগ্রাম মডেল পাবলিক স্কুলে আয়োজন করা হয় বর্ষবরণ অনুষ্ঠান।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা।   ছবি : কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় : সকালে বিশ্ববিদ্যালয় ১ নম্বর গেট গোলচত্বর থেকে উপাচার্য ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে বের করা হয় আনন্দ শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রা শেষে শহীদ আবদুর রব হল মাঠে মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় অনুষ্ঠান। উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী।

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) : সকাল সাড়ে সাতটায় চুয়েট গোলচত্বরে বৈশাখী শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে উৎসব উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। শোভাযাত্রাটি চুয়েট আবাসিক গোলচত্বর থেকে শুরু হয়ে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে চুয়েট বৈশাখী মঞ্চে গিয়ে শেষ হয়। এছাড়া অন্যান্য অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল পান্তা-উৎসব, বাউল উৎসব, শিশু-কিশোরদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, লটারি ড্র, বৈশাখের আলোচনা প্রভৃতি।

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।   ছবি : কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব : গান, নাচ, আবৃত্তি আর কথামালায় বর্ণাঢ্য বৈশাখী উৎসবের মধ্য দিয়ে অনানুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করল চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের ‘বঙ্গবন্ধু হল’। শনিবার কনফিডেন্স সিমেন্টের সৌজন্যে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়। আনন্দধ্বনির পরিবেশনা দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। শিল্পী ফাহমিদা রহমান, সুপ্রিয়া, আব্দুল হালিম, আলতুশি, শাহরিন জহির তানি প্রমুখ শিল্পী ছাড়াও ক্লাবের সদস্যরাও সংগীত পরিবেশন করেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রেস ক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার ও সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ। উপস্থাপনায় ছিলেন সাংস্কৃতিক সম্পাদক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার।

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি : জামালখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কালচারাল ক্লাব দুদিনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। শনিবার শোভাযাত্রার মাধ্যমে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। অনুষ্ঠানের আকর্ষণ ছিল বৈশাখী মেলা, পিঠা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি : খুলশী পূর্ব নাসিরাবাদের নোমান সোসাইটির ইডিইউর স্থায়ী ক্যাম্পাসে কালচারাল ক্লাব জমজমাট অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। দুই পর্বে বিভক্ত অনুষ্ঠানের শুরুতে ছিল স্মৃতিচারণ। বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সজল বড়ুয়া ও সহকারী অধ্যাপক প্রবাল দাশগুপ্ত। 

সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ নেন শিক্ষার্থী সালসাবিল মুমু, মুন দাশ ও জিনাত, সুদীপ্ত দে, ইফতি ও ফাহিম।

বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটিতে মঙ্গল শোভাযাত্রা।   ছবি : কালের কণ্ঠ

বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি : অনুষ্ঠান শুরু হয় মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে। এতে উপাচার্য ড. সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী, ট্রেজারার অধ্যাপক অজিত কুমার দাশ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক মোহাম্মদ নুরুল হুদা শিকদার, ফার্মেসি বিভাগের ড. হযরত আলী মিয়া, রেজিস্ট্রার এ এফ এম আখতারুজ্জামান কায়সার, এমবিএ প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক রানা করন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের কো-অর্ডিনেটর ড. মোহাম্মদ সরোয়ার উদ্দীন, ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান খালেদ বিন চৌধুরী, ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান অনিন্দ্য কুমার নাথ, ডেপুটি রেজিস্ট্রার সালাহ উদ্দীন শাহরিয়ার, শিক্ষক-কর্মকর্তা এবং ছাত্রছাত্রীরা অংশ নেন।

নোয়াখালী : জেলা প্রশাসনের কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান, মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা উৎসব সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বৈশাখী মেলা। মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। নোয়াখালী সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের বৈশাখী মেলা উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. মাহবুবুল আলম তালুকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার মো. ইলিয়াছ শরীফ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহিন।

রাউজানে মেলা উদ্বোধন।   ছবি : কালের কণ্ঠ

রাউজান : সত্তারঘাটের হালদা পাড়ে ২১ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। সভাপতিত্ব করেন কাউন্সিলর আলমগীর আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এহেছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম হোসেন রেজা, পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, পৌর কাউন্সিলর কাজী মো. ইকবাল, ওসি কেপায়েত উল্লাহ, প্রধান শিক্ষক বদিউল আলম প্রমুখ।


কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের মোরগলড়াই।   ছবি : কালের কণ্ঠ


সীতাকুণ্ডে অনুষ্ঠানে অতিথির সঙ্গে পথশিশুরা।   ছবি : কালের কণ্ঠ


রাঙ্গুনিয়ায় শোভাযাত্রা।   ছবি : কালের কণ্ঠ



মন্তব্য