kalerkantho


শিশু অপহরণের দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



চার বছরের শিশু রাকিব চৌধুরীকে অপহরণের দায়ে তিন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। গতকাল রবিবার চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুন্যাল-২ এর বিচারক মো. মোতাহির আলী এই রায় দিয়েছেন। রায়ে একজন আসামির বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁকে খালাস দেওয়া হয়। দণ্ডিতরা হলেন হারাধন নাথ (৫৮), শেফালী বেগম (৪৫) ও আবদুল আজিজ (৫৪)। তাঁদের মধ্যে হারাধন ও শেফালী বেগম পলাতক। রায় ঘোষণার সময় আবদুল আজিজ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তিনি চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওয়ার্ডবয় পদে কর্মরত। খালাসপ্রাপ্ত আসামির নাম শফিউল আজম।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর এম এ নাসের জানান, আসামিদের প্রত্যেককে অপহরণের দায়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ও ৭/৩০ ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরো ছয় মাস করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্র জানায়, ২০০৯ সালের ১৫ জানুয়ারি নাস্তা করানোর কথা বলে রাকিব চৌধুরী নামের এক শিশুকে অপহরণ করেন আসামি হারাধান। পরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আয়া শেফালী বেগমের কাছে রাকিব চৌধুরীকে বিক্রি করে দেওয়া হয়। এই ঘটনায় রাকিবের বাবা মিসবাহুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মিজবাহুল তাঁর পূর্ব পরিচত আজিজকেও আসামি করেন। আজিজ পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে বাদীর ছেলেকে অপহরণ করেছিলেন। মামলার তদন্ত শেষে বায়েজিদ বোস্তামী থানা পুলিশ ২০০৯ সালে ১৫ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। ওই বছরের ৩ নভেম্বর আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষের ১৯ সাক্ষীর মধ্যে ছয়জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত রবিবার রায় ঘোষণা করেন।



মন্তব্য