kalerkantho


কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার দাবি

কোচিং বাণিজ্য বন্ধের দাবিতে নগরীর চেরাগি পাহাড় মোড়ে মানববন্ধন।

কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার দাবিতে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দিয়েছে ‘শিক্ষা-ব্যবসা বিরোধী সচেতন অভিভাবকবৃন্দ-চট্টগ্রাম’ নামে একটি সংগঠন। বৃহস্পতিবার নগরীর চেরাগি মোড় চত্বরে মানববন্ধন শেষে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন অভিভাবক মহুয়া ভট্টাচার্য। বক্তব্য দেন  ডা. রত্না বৈষ্ণব, ডা. সুশান্ত বড়ুয়া, অভিভাবক ঝুলন চৌধুরী, মো. জাহেদ, সানি চৌধুরী, মুক্তা ভট্টাচার্য প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, স্কুল যদি একজন শিক্ষার্থীর পড়াশোনা শতভাগ নিশ্চিত করতে পারত তাহলে কোচিং প্রভাব বিস্তার করতে পারত না। কিন্তু আজ আমরা আমাদের সন্তানদের শিক্ষাজীবন নিয়ে চরম উদ্বিগ্ন। একদিকে শিক্ষার খরচ বাড়ছে অন্যদিকে বাড়ছে পরীক্ষা ও পড়ার চাপ। স্কুলে পড়াশোনা হয় না ফলে সিলেবাস শেষ করা, ভালো ফলাফল করার জন্য নির্ভর করতে হচ্ছে কোচিং সেন্টারগুলোর ওপর। সন্তানদের স্কুলেও উপস্থিত থাকতে হয় আবার কোচিং ক্লাসেও পড়াতে হয় বাধ্যতামূলকভাবে। সেই সুযোগে কোচিং সেন্টারগুলো করছে বাণিজ্য। এছাড়া নগরীতে মাধ্যমিক পর্যায়ে সরকারি স্কুল সংখ্যা কম হওয়ার কারণে প্রতিবছর স্কুলভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে কোচিং সেন্টারগুলো বিশাল অংকের ব্যবসা করছে। কোচিং সেন্টার প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য প্রশ্নফাঁস, ফলফাঁসসহ নানা রকম দুর্নীতি করছে। প্রতিবছর স্কুলগুলো ভর্তি ও পুনঃভর্তির নামে অতিরিক্ত ফি আদায় করছে। সেই সাথে কোচিং গাইড কোচিং ব্যবসার কারণে অভিভাবকদের ওপর বাড়তি খরচের চাপ পড়ছে।

স্কুলকে শিক্ষার মূল কেন্দ্রে পরিণত করার জন্য অভিভাবকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

সমাবেশ শেষে একটি প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দেয়।



মন্তব্য