kalerkantho


জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতি

বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা

দ্বিতীয় রাজধানী ডেস্ক   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন যুুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বীকৃতির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। ওই স্বীকৃতি প্রত্যাহার এবং স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশসহ নানা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত সমন্বয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক আল্লামা এম এ মতিন ও সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দীন বখতেয়ার এক বিবৃতিতে বলেন, শুধু ফিলিস্তিনের নয়, জেরুজালেমে সারা বিশ্বের মুসলমানদের অতি পবিত্রতম স্থান প্রথম কিবলা পবিত্র বায়তুল মোকাদ্দাস রয়েছে। আধিপত্যবাদী দখলদার ইসরাইলি ইহুদিরা মুসলমানদের এ পবিত্র ভূমি দখল করে যুগ যুগ ধরে ফিলিস্তিনি মুসলমানদের হত্যা করছে।   যুক্তরাষ্ট্রের এ উস্কানিমূলক ঘোষণা ও সিদ্ধান্তের ফলে দখলদার ইহুদিরা আরো বেপরোয়া হয়ে যাবে। ফলে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়া আরো বিঘ্নিত হবে। মুসলিম বিশ্বে এক অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি হবে। এ অবস্থায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের উস্কানিমূলক সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে। স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় বিশ্ব সম্প্রদায়কে ভূমিকা রাখতে হবে।

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান, মহাসচিব মাওলানা এম এ মতিন ও সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব স উ ম আবদুস সামাদ বিবৃতিতে বলেন, মার্কিন যুুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এ স্বীকৃতির ফলে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের স্বপ্নকে কবর দেওয়া হল। ফিলিস্তিনের প্রতি এ অবিচারের প্রতিবাদ করা সারা পৃথিবীর শান্তিকামী মানুষের নৈতিক দায়িত্ব।

নেতৃবৃন্দ আজ শুক্রবার বাদে জুমা দেশব্যাপী জেলায় জেলায় দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচি সফল করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

এদিকে নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট হলে গতকাল বৃহস্পতিবার খেলাফত মজলিশের পূর্বনির্ধারিত ওলামা মাশায়েখদের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্মেলন প্রতিবাদ সমাবেশে রূপ নেয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন খেলাফত মজলিশ চট্টগ্রাম বিভাগের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মো. ইসহাক। বক্তব্য দেন হেফাজত ইসলাম নায়েবে আমির আল্লামা শাহ মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী ও আল্লামা শাহ মুহাম্মদ তৈয়ব, মাওলানা মজদুদ্দীন আহমদ, ড. মাওলানা এ টি এম তাহের, মাওলানা শাখাওয়াত হোসেন, মাওলনা আহমদ দিদার কাসেমী ও ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সাল। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম নগর খেলাফত মজলিশ সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা এ এস এম খুরশীদ আলম।

বক্তারা বলেন, সারা বিশ্বে মুসলমানরা আজ নির্যাতিত। মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলমানদের জাতিগতভাবে নিধনের উদ্দেশ্যে হত্যা করা হচ্ছে। অন্যদিকে দখলদার ইসরাইলের পক্ষ হয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জোরপূর্বক ফিলিস্তিনের রাজধানী জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করেছেন। আজ মুসলমানদের এক হওয়ার সময় এসেছে। ঐক্যছাড়া এই জুলুম থেকে রক্ষা পাওয়ার কোনো পথ নেই।


মন্তব্য