kalerkantho


জীবননগর থানার ওসির কাণ্ড

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ঘুষের টাকা না পেয়ে দুই যুবলীগকর্মীকে শ্লীলতাহানির মামলায় আসামি করে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর থানার ওসি এনামুল হকের বিরুদ্ধে। জীবননগর উপজেলার রায়পুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে যুবলীগকর্মী কবির হোসেন ও একই মহল্লার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে যুবলীগকর্মী আবু হুরায়রা এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগকারীরা জানান, সম্প্রতি প্রতিবেশীর সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধের সূত্র ধরে ওসি এনামুল হক তাঁদের কাছে মোটা অঙ্কের ঘুষ দাবি করেন। ঘুষের টাকা না দেওয়ায় তাঁদের থানায় আটকে রাখা হয়। এরপর প্রতিবেশী মৃত হাফিজ উদ্দিনের মেয়ে শাবানা খাতুনকে ভয় দেখিয়ে তাঁদের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ দিতে বাধ্য করেন ওসি। শাবানা প্রথমে রাজি না হলে তাঁকেও কিছু সময় থানায় আটকে রাখা হয়। মামলার পর যুবলীগকর্মীদের আদালতে পাঠানো হয়। গত বুধবার তাঁরা জামিনে মুক্ত হন।

এ বিষয়ে জীবননগর থানার ওসি এনামুল হক জানান, বাদীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়া হয়েছে। এ সময় আসামিদের কাছে ঘুষ চাওয়ার বিষয়টি মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি।



মন্তব্য