kalerkantho


খুলনায় জলবায়ু বিষয়ক সংলাপ

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



উপকূলীয় খুলনা অঞ্চলে বাঁধ এখন রক্ষাকবচ, আবার এ বাঁধই মরণফাঁদ। বাঁধ না থাকলে নদীর নোনা পানিতে জনপদ ভেসে যাবে; আবার বাঁধের কারণে জলাবদ্ধতা ও নদী শুকিয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটছে। তবে সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) উদাসীনতা। সুন্দরবনসংলগ্ন কয়রা উপজেলার কপোতাক্ষ কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত তিন দিনের জলবায়ু মেলায় আয়োজিত জলবায়ু সংলাপে এসব কথা বলেন বক্তারা। গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত এ সংলাপে বক্তারা আরো বলেন, ভাঙনের হাত থেকে বাঁধ রক্ষায় তারা (পাউবো) যেমন সচেষ্ট হয় না, তেমনি বাঁধ ভেঙে গেলে মেরামত করতেও তারা যথাসময়ে এগিয়ে আসে না। সামান্য ভাঙা অংশ মেরামত করতে যেখানে দুই হাজার টাকা খরচের দরকার হয়, তা না করে তারা ক্ষতি বেশি হলে সেই কাজ দুই কোটি টাকা বরাদ্দ নিয়ে করে। তত দিনে জনপদ ভেঙে মানুষ সর্বস্বান্ত হয়। ফলে বাঁধের রক্ষণাবেক্ষণের কাজ স্থানীয় সরকারের নিয়ন্ত্রণে-তদারকিতে আনতে হবে। আইনজীবী জি এম কেরামত আলীর সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিমুল কুমার সাহা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাফর রানা, কয়রা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ স ম শফিকুল ইসলাম, মহারাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুন, সদস্য নীলিমা চক্রবর্তী, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ নন্দী, হাসান মেহেদী, আশেক-ই-এলাহী, অদ্রিশ আদিত্য মণ্ডল, অনুভব সরকার, জাহিদ হাসান প্রমুখ।


মন্তব্য