kalerkantho


পদ ছাড়লেও ‘দায়িত্ব’ ছাড়েননি সর্বভুক ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



পদ ছাড়লেও ‘দায়িত্ব’ ছাড়েননি সর্বভুক ইউএনও

কুষ্টিয়ার বিতর্কিত সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইবাদত হোসেনের বদলি কার্যকর করা হয়েছে। গত শুক্রবার দুপুরে নতুন ইউএনওকে দায়িত্ব হস্তান্তর করলেও গতকাল রবিবার পর্যন্ত তিনি কুষ্টিয়া ছেড়ে যাননি।

বিশ্বস্ত একাধিক সূত্র জানায়, কুষ্টিয়াকে ভিক্ষুকমুক্ত করার জন্যে তিনি বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা নিয়েছেন। কিন্তু তেমন কোনো কাজ করেননি। গতকাল দিনভর তিনি লোকজন দিয়ে উপজেলা পরিষদ ও অন্য কয়েকটি স্থানে দাঁড়িয়ে থেকে ভিক্ষুকমুক্তকরণের বিল বোর্ড স্থাপন করেন। দায়িত্ব হস্তান্তর করলেও তিনি এখনো সরকারি গাড়ি ব্যবহার করছেন। গত শনিবার ও গতকাল রবিবার বিভিন্ন সময়ে এই গাড়ি নিয়ে তাঁকে বিভিন্ন জায়গায় যেতে দেখা গেছে।

উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানান, ত্রাণের টিন দিয়ে নির্মাণ করা উপজেলা পরিষদের আলোচিত সেই নারী মার্কেট উদ্বোধনের জন্যে তিনি তোড়জোড় করছেন। লটারি করে দোকান বরাদ্দ দেওয়ার কথা, কিন্তু বরাদ্দপ্রাপ্তদের কোনো লটারি বা তালিকা প্রকাশ না করে আজ সোমবার সেটি উদ্বোধন করবেন। এ ছাড়া ‘একটি বাড়ি, একটি খামার’ প্রকল্পের টাকায় নির্মিত ভবনে শুক্রবার রাতে তিনি শ্রমিক বৃদ্ধি করেছেন। সেখানে শ্রমিকরা রাত-দিন মিলে কাজ করছে। দু-এক দিনের মধ্যে এর নির্মাণ শেষ করতে চাচ্ছেন।

একটি সূত্র জানায়, কুষ্টিয়া অফিসার্স ক্লাবের উন্নয়নের জন্যে তিনি উপজেলার সব সার ডিলারের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা নিয়েছেন। কিন্তু ক্লাবের কোনো উন্নয়ন করেননি। এ নিয়ে ক্লাব সদস্য অন্য কর্মকর্তারা তাঁর ওপর বেজায় ক্ষুব্ধ। উপজেলা অফিসার্স ক্লাবের একাধিক কর্মকর্তা বলেন, ‘তিনি আমাদের কাছ থেকে জোর করে বিদায় সংবর্ধনা নিচ্ছেন। এটি সোমবার সকালে হওয়ার কথা। এ নিয়ে ক্লাব সদস্যরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন।’

উল্লেখ্য, গত ২৫ ডিসেম্বর কালের কণ্ঠ ইবাদতের অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে ‘সর্বভুক ইউএনও!’ শিরোনামে একটি কার্টুনসহ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর আগে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে গত ১৪ ডিসেম্বর তাঁকে খুলনার দাকোপে বদলি করা হয়। এরপর তিনি তদবির করে সেটি ২১ ডিসেম্বর তাঁর নিজ জেলার পাশে যশোরের চৌগাছায় করে নেন।

খুলনা বিভাগীয় প্রশাসকের কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ইবাদতের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য