kalerkantho


বেয়াই বেয়াইনের প্রেম

কাল মুক্তি পাবে জাকির হোসেন রাজুর ‘ভালো থেকো’। ছবিতে আরিফিন শুভর সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন তানহা তাসনিয়া। এই ছবি ও নতুন জুটি নিয়ে লিখেছেন মীর রাকিব হাসান

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বেয়াই বেয়াইনের প্রেম

২ ফেব্রুয়ারি শুভর জন্মদিন। এদিনই মুক্তি পাবে তাঁর নতুন ছবি ‘ভালো থেকো’। প্রযোজক জাহিদ হাসান অভি বলেছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে শুভ আমার অনেক পছন্দের মানুষ। তাঁর জন্মদিনে উপহার হিসেবে ছবিটি মুক্তি দিলাম।’

শুভর সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’ গত বছরের অন্যতম আলোচিত ও ব্যবসাসফল ছবি। নতুন ছবিটিও কি সফল হবে? শুভ বলেন, ‘এ ধরনের চাপ আমি কখনোই নিতে চাই না। চাপ নিলে নিজেকে নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে পারব না। যখন যে ছবি করি সেটা সিনসিয়ারিটি আর ডেডিকেশন নিয়েই করার চেষ্টা করি। ফল কী হবে সেটা নিয়ে ভাবি না। কারণ ওটা আমার হাতেই নেই।’ শুভর সঙ্গে প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়েছেন তানহা। ছবিতে তিনি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মেয়ে নীলা। চরিত্রটা কেমন? ‘পরিবারের সবার ছোট আমি। আদর-আহ্লাদে বড় হওয়া। যেমন ইমোশনাল তেমনি রাগি, ভীষণ ঢংগী একটা মেয়ে’—বললেন তানহা।

জাকির হোসেন রাজুর সঙ্গে শুভর তিন নম্বর ছবি এটি। আগে ‘নিয়তি’ ও ‘প্রেমী ও প্রেমী’ করেছেন। ‘রাজু স্যারের সঙ্গে কাজ করার মূল কারণ তাঁর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য এবং নির্মাণের ধরন। তাঁর ছবিতে কাজ করে অনেক শেখার আছে’—বললেন শুভ।

শুভ আর তানহার সম্পর্কটা অনেকটা টম অ্যান্ড জেরির মতো। শুটিংয়ে তানহার পেছনে লেগেই থাকতেন শুভ। তানহা বলেন, ‘বলতে গেলে মারামারির অবস্থা। আমি তো ওকে বলতামই, যদি পারতাম ফেসবুকের মতো তোমাকে রিয়াল লাইফে ব্লক করতাম! খুব দ্রুত চারপাশে একটা ফ্রেন্ডলি পরিবেশ বানিয়ে নিতে পারে শুভ। কিন্তু ভীষণ দুষ্টু। দেখা গেল, সিরিয়াস একটা দৃশ্য ধারণ চলছে। তার অংশের কাজ শেষ। আমারটার সময় ক্যামেরার পেছনে বসে অদ্ভুত একটা এক্সপ্রেশন দিয়ে বসে আছে। দেখে না হেসে পারা যায় না। পরে রাজু স্যারের কাছে বকা খেতে হতো আমাকে।’

ছবির শুটিং শুরু হয়েছে ২০১৬ সালের শেষের দিকে। মুক্তি পেতে দেরি হওয়ার কারণ দেখালেন নায়ক, “শুটিংয়ে খুব একটা সময় লাগেনি। ছবির পোস্ট প্রডাকশনের কাজ ভারতেও হয়েছে। এখানেই লম্বা একটা সময় চলে গেছে। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টাইগার মিডিয়া আবার পরিবেশকও। ‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘হালদা’ রিলিজ দিয়েছে তারা। এ কারণেও অনেক সময় গেছে।”

ছবির কয়েকটি গান প্রকাশিত হয়েছে অনলাইনে। দারুণ প্রশংসিত হয়েছে সেগুলো। শুভ বলেন, ‘বিয়ের গানটা খুব মজা করে শুট করেছি। যেমন তানহার বোনের সঙ্গে আমার ভাইয়ের বিয়ে। আমরা বেয়াই-বেয়াইন খুব ঝগড়া করছি। কিভাবে একজন আরেকজনকে ছোট করা যায় সব চেষ্টাই করেছি। মনে হয়েছে, সত্যিই যেন আমার ভাইয়ের বিয়ে হচ্ছে।’ শুভ-তানহা দুজনই বারবার বললেন, এটি মৌলিক গল্পের ছবি। শুভ বলেন, ‘দর্শক বরাবরই অভিযোগ করেন, অমুক ছবি তমুক ছবির কপি। চ্যালেঞ্জ করে বলছি, এই ছবিটা মৌলিক। অনেক দিন পর পুরোপুরি পারিবারিক গল্পের একটা দেখতে পাবে দর্শক। যাঁরা মৌলিক গল্পের জন্য মুখিয়ে থাকেন তাঁদের ভালো লাগবে ছবিটা।’



মন্তব্য