kalerkantho


আরো একটি সুপার হিরোময় বছর

২০১৮ সালে হলিউডে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র নিয়ে লিখেছেন হাসনাইন মাহমুদ

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আরো একটি সুপার হিরোময় বছর

টুম্ব রাইডার

ব্ল্যাক প্যান্থার

‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা : সিভিল ওয়ার’ চলচ্চিত্রে প্রথমবার এসেই সবার মন জয় করে নিয়েছিল ওয়াকান্ডা রাজ্যের এই সুপারিহিরো রাজপুত্র। ব্ল্যাক প্যান্থার চরিত্রে রূপদানকারী অভিনেতা চ্যাডউইক বসম্যানকে বড় পর্দায় নৈরাজ্যবাদীদের থেকে নিজ দেশকে বাঁচানোর যুদ্ধে অবতীর্ণ হতে দেখা যাবে। রায়ান কুগলার পরিচালিত চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে ১৬ ফেব্রুয়ারি।

 

টুম্ব রাইডার

বেশ দীর্ঘ বিরতির পর ফের পর্দায় আসছে লারা ক্রফট। অ্যাঞ্জেলিনা জোলির বদলে জনপ্রিয় এই চরিত্রে এবার দেখা যাবে অস্কারজয়ী অ্যালিসিয়া ভিকান্দারকে। এবার লারা উপস্থিত হবে সেই দ্বীপে, যেখান থেকে তার বাবা নিখোঁজ হয়েছিল। রোর উথাং পরিচালিত অ্যাকশন-অ্যাডভেঞ্চার ঘরানার সিনেমাটির বড় অংশের শুটিং হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। মুক্তি পাবে ১৬ মার্চ।

 

রেডি প্লেয়ার ওয়ান

স্টিভেন স্পিলবার্গের কল্পবিজ্ঞানধর্মী সিনেমাটি ২০১৮-র অন্যতম প্রতীক্ষিত চলচ্চিত্র। আর্নেস্ট ক্লাইনের বিখ্যাত উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে ৩০ মার্চ। ভবিষ্যৎ পৃথিবীতে এক কিশোরের ভার্চুয়াল রিয়ালিটির জগতে বিপজ্জনক অভিযানকে কেন্দ্র করে এগিয়ে গেছে কাহিনি। অভিনয়ে টাই শেরিডান, অলিভিয়া কুক, সায়মন পেগ।

 

অ্যাভেঞ্জার্স : ইনফিনিটি ওয়ার

এই ছবিতে ইউনিভার্সের সব সুপারহিরোকে এক হতে দেখা যাবে প্রধান খল থ্যানোসের বিরুদ্ধে পৃথিবীকে রক্ষার যুদ্ধে নামতে। চলচ্চিত্রে আয়রনম্যান, ক্যাপ্টেন আমেরিকা, হাল্ক, থর, ডক্টর স্ট্রেঞ্জ তো আছেই, পাশাপাশি দেখা যাবে ‘গার্ডিয়ানস অব দ্য গ্যালাক্সি’র সদস্যদেরও। পরিচালনায় রুশো ভ্রাতৃদ্বয়। ৪ মে মুক্তি পেতে যাওয়া তারকাবহুল এই চলচ্চিত্রে আছেন রবার্ট ডাউনি জুনিয়র, বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচ, ক্রিস হেমসওয়ার্থ, ক্রিস ইভান্স, ক্রিস প্র্যাট, স্কারলেট জোহানসন, টম হল্যান্ড প্রমুখ। পাশাপাশি সুপার ভিলেন থ্যানোস চরিত্রে দেখা যাবে জশ ব্রোলিনকে।

 

সোলো : আ স্টার ওয়ারস স্টোরি

‘রোগ ওয়ান’-এর পর এ বছর আবারও স্টার ওয়ারসের আরেকটি স্পিন অফ। স্টার ওয়ারসের জনপ্রিয় চরিত্র হান সোলোর তরুণ সময়ের গল্প নিয়ে নির্মিত ছবিতে আছেন আলডেন এরেনরাইক। ফিল লর্ড, ক্রিস্টোফার মিলার ও রন হাওয়ার্ডের সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে ২৫ মে।

 

ডেডপুল ২

২০১৫ সালে রায়ান রেনল্ডস অভিনীত ‘ডেডপুল’ বিশ্বজুড়ে বক্স অফিসে ঝড় তুলেছিল। এর পর থেকেই ভক্তরা অপেক্ষায়। ১ জুন মুক্তি পাচ্ছে সুপারহিরো কমেডি ধাঁচের ডেডপুলের দ্বিতীয় কিস্তি।

 

ওশানস এইট

আসছে ওশানস সিরিজের নতুন কিস্তি। কিন্তু চুরির গল্প নিয়ে নির্মিত কমেডি ধাঁচের এই চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রগুলোতে থাকছে নারীরা। ৮ জুন মুক্তি পেতে যাওয়া চলচ্চিত্রটিতে দর্শকরা একই সঙ্গে দেখতে পাবে স্যান্ড্রা বুলক, কেট ব্ল্যানচেট, অ্যান হ্যাথাওয়ের মতো জনপ্রিয় নায়িকাদের। পরিচালনায় ‘হাঙ্গার গেমস’ খ্যাত গ্যারি রস।

 

ইনক্রেডিবলস টু

পিক্সারের ২০০৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি সুপারহিরো পরিবারকে কেন্দ্র করে নির্মিত ‘দ্য ইনক্রেডিবলস’-এর দ্বিতীয় কিস্তি মুক্তি পাচ্ছে ১৫ জুন। কিংবদন্তি এনিমেশন চলচ্চিত্র পরিচালক ব্র্যাড বার্ডের নির্মাণে চলচ্চিত্রটির টিজার মুক্তির পরই ইউটিউবে ঝড় তুলেছে। ছবিতে সুপারহিরো পার পরিবারকে দ্য আন্ডারমাইনার নামক সুপার ভিলেনের হাত থেকে পৃথিবীকে বাঁচানোর অ্যাডভেঞ্চারে জড়িয়ে পড়তে দেখা যাবে।

 

মিশন ইমপসিবল সিক্স

অ্যাকশন স্পাই ঘরানার জনপ্রিয় সিরিজ ‘মিশন ইমপসিবল’-এর ষষ্ঠ কিস্তি মুক্তি পাবে ২৭ জুলাই। চলচ্চিত্রটিতে ইথান হান্ট চরিত্রে আবারও দেখা যাবে টম ক্রুজকে। এবারের চলচ্চিত্রের নতুন আকর্ষণ ‘সুপারম্যান’ খ্যাত হেনরি কাবিলের অন্তর্ভুক্তি। অ্যাকশনে ভরপুর চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করছেন ক্রিস্টোফার ম্যাককুয়ার।

 

ফ্যান্টাস্টিক বিস্টস : ক্রাইমস অব গ্রিন্ডেলওয়াল্ড

‘ফ্যান্টাস্টিক বিস্ট’ সিরিজের নতুন কিস্তি মুক্তি পাবে ১৬ নভেম্বর। চলচ্চিত্রটিতে ভোল্ডেমর্ট পূর্ববর্তী কালো জাদুকর গ্রিন্ডেলওয়াল্ডের বিরুদ্ধে যুদ্ধে দেখা যাবে সিরিজের প্রধান চরিত্র জাদুর প্রাণী বিশেষজ্ঞ নিউট স্ক্যামান্ডারকে। আগের কিস্তির সঙ্গী টিনা, জ্যাকব, কুইনির পাশাপাশি এবার তার সঙ্গে যোগ দেবেন হ্যারির প্রিয় শিক্ষক অ্যালবাস ডাম্বলডোর। গ্রিন্ডেলওয়াল্ডের চরিত্র করেছেন জনি ডেপ আর নিউট স্ক্যামান্ডার চরিত্রে যথারীতি আছেন এডি রেডমাইন। আর ডাম্বলডোর চরিত্র করছেন জুড ল।

 

এ ছাড়া আরো মুক্তি পাবে ‘স্কাইস্ক্র্যাপার্স’, ‘মরটাল এঞ্জিনস’, ‘এলিটা’, ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড : ফলেন কিংডম’, ‘মেরি পপিনস রিটার্নস’, ‘অ্যাকুয়াম্যান’ ইত্যাদি বহুল প্রতীক্ষিত হলিউড ছবি। অনেকে অপেক্ষায় থাকবেন মার্টিন স্করসেজির ‘দি আইরিশম্যান’, আসগার ফারহাদির ‘এভরিবডি নোজ’, পল ভারহোভেনের ‘ব্লেসড ভার্জিন’ দেখার জন্য।



মন্তব্য