kalerkantho


এই গান এই উপস্থাপনা

গান গাওয়ার পাশাপাশি উপস্থাপনায়ও বেশ ব্যস্ত লিজা। কাজ করছেন নিজের দ্বিতীয় এককের। সময় দিচ্ছেন প্লেব্যাক ও স্টেজেও। লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন, ছবি তুলেছেন নাভিদ ইশতিয়াক তরু   

১৩ নভেম্বর, ২০১৪ ০০:০০



এই গান এই উপস্থাপনা

'হ্যালো সবাই! আজ রাত ৮টায় আমি থাকছি বৈশাখী টিভিতে (লাইভ), ৯টা ১০ মিনিটে এনটিভিতে, ১০টায় এশিয়ান টিভিতে এবং ১০টা ১০ মিনিটে একুশে টিভিতে (লাইভ)। আর বলব না...' ৮ নভেম্বর বিকেলে লিজার ফেসবুক পোস্ট! একই দিনে চারটি টিভি চ্যানেলে তাঁর উপস্থিতি! চারটি অনুষ্ঠানের দুটিতে ছিলেন গায়িকার ভূমিকায়, দুটিতে উপস্থাপনায়। বৈশাখী টিভি ও এশিয়ান টিভির অনুষ্ঠান দুটি লিজার উপস্থাপনায় প্রতি শনিবার নিয়মিত প্রচারিত হচ্ছে। আরো তিনটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন ২০০৮ সালের ক্লোজআপ ওয়ান বিজয়ী ময়মনসিংহের এই মেয়ে। এসএটিভিতে প্রতি রবিবার রাত ১১টায় 'ইনসাইড টিউন', জিটিভিতে প্রতি মঙ্গলবার রাত ৮টায় 'ভালোবাসি গান' এবং এশিয়ান টিভিতে প্রতি বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় 'ক্লাব জাংশন'। উপস্থাপনার অভিজ্ঞতা কেমন? লিজা বলেন, 'মজার। অনেক পরিশ্রমও করতে হয়। একেকটি অনুষ্ঠানের জন্য একেকবার মেকআপ নিতে হয়, ড্রেস বদলাতে হয়। নির্দিষ্ট সময়ে গিয়ে পৌঁছতে হয়। আগে থেকেই নির্ধারণ করা থাকে বলে অনেক সময় চাইলেও অন্য কোনো কাজ করতে পারি না।'

উপস্থাপনার কারণে গানের ক্ষতি হচ্ছে না? 'একদমই না। যতগুলো অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছি, সবই গানের অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে অতিথিদের গান শুনি, গান নিয়ে কথা বলি, নিজেও তাঁদের সঙ্গে গাই। এতে গান সম্পর্কে আমার ধারণাটা বরং আরো সমৃদ্ধ হচ্ছে!'

গত ঈদের আগের দিন থেকে টানা সাত দিন বিভিন্ন টিভি অনুষ্ঠানে গান করেছেন লিজা। এ জন্য ঈদটাও ভালোভাবে উদ্‌যাপন করতে পারেননি। তিনি বলেন, 'গান নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন। এখনো প্রতিদিন কোনো না কোনোভাবে গানে সময় দিই। এই অনুষ্ঠানগুলোতে অংশ নেওয়ার জন্য এক মাস আগে থেকে প্রস্তুতি নিয়েছি। একটি অনুষ্ঠানে সঙ্গে ছিলেন শেখ সাদী খান স্যার। তিনি আমার গানের খুব প্রশংসা করেছেন। এই অনুভূতির মধ্যেই ঈদের আনন্দ খুঁজে নিয়েছি!'

২০১২ সালে এসেছিল লিজার প্রথম একক 'লিজা পার্ট-১'। সম্প্রতি নতুন অ্যালবামের কাজ ধরেছেন। কয়েকটি গান হয়েও গেছে। সুর ও সংগীত করেছেন আরফিন রুমি, বেলাল খান ও জুয়েল মোর্শেদ। এর বাইরে দু-একজন সিনিয়র সংগীত ব্যক্তিত্ব লিজার জন্য গান করছেন। লিজা বলেন, 'এটা এখন সারপ্রাইজ! কাজ শেষ হলে সবাইকে জানাব।' নতুন বছরের শুরুতেই অ্যালবামটি প্রকাশ করার ইচ্ছা তাঁর।

প্লেব্যাকেও নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করার চেষ্টা করছেন ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি থেকে সম্প্রতি বিবিএ সম্পন্ন করা এই মেয়ে। মুক্তির মিছিলে থাকা 'মার ছক্কা', 'ভোলা যাবে না', 'ছেলেটি আবোল তাবোল মেয়েটি পাগল পাগল', 'ইনোসেন্ট লাভ', 'আয়না সুন্দরী' ছবিতে রয়েছে তাঁর গান। ধারাবাহিক 'ট্রাফিক সিগন্যাল' নাটকের টাইটেল গানেও কণ্ঠ দিলেন। স্টেজেও থেমে নেই। সম্প্রতি আসিফ ও পুতুলের সঙ্গে গান করে এসেছেন ব্রুনেই থেকে। জানুয়ারিতে যাবেন কানাডায়।

গত বছর জাতীয় ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় (নারী) কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিলেন। বর্তমানে সারা দেশের নারীদের মধ্যে তিনি অষ্টম। সামনে আবার খেলা শুরু হবে। এবার প্রস্তুতি কেমন? 'আমি মানুষ একজন। কত্ত কী করব! অনেক দিন প্র্যাকটিসের মধ্যে নেই। কোচ মারুফ খান দেশের বাইরে। তিনি এলে সিদ্ধান্ত দিবেন এবার খেলব কি খেলব না। যদি খেলি, সেরা খেলাটাই খেলব।'

 

 



মন্তব্য