kalerkantho


বাইশ থেকে অর্ধশতাধিক হলে মাহি

রংবেরং প্রতিবেদক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বাইশ থেকে অর্ধশতাধিক হলে মাহি

মুস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘জান্নাত’ ছবিটি ঈদে মাত্র ২২টি হলে মুক্তি পায়। ঢাকার পদ্মা ও আজাদ বাদে বাকি ২০টি হলই ছিল মফস্বল শহরে। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন সাতটি শাখায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া ‘দুই নয়নের আলো’র পরিচালক মানিক। কিন্তু মুক্তির কিছুদিন পেরোতে না পেরোতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ছবিটি। দ্বিতীয় সপ্তাহেই একে একে ছবিটি বুকিং করতে থাকে বড় হলগুলো। এ সপ্তাহে মধুমিতা, সনির পাশাপাশি বলাকা, মণিহারসহ সারা দেশের অর্ধশতাধিক হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘জান্নাত’। এর কারণ হিসেবে হল মালিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিয়া আলাউদ্দিন মাহির অভিনয় ও ছবির গল্পকে বড় করে দেখছেন। আলাউদ্দিন বলেন, ‘এখন পর্যন্ত মাহির সেরা অভিনয় এই ছবিতে ফুটে উঠেছে। গত কয়েক বছরে অনেক ছবি দেখেছি। তবে এই ছবির গল্প অন্য রকম। মৌলিক ছবি দর্শকরা সব সময় পছন্দ করে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।’ মধুমিতা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ‘ছবিটি সেন্সরে দেখেই মুগ্ধ হয়েছিলাম। তখনই পরিচালক ও মাহিকে অভিনন্দন জানিয়েছিলাম। এই ছবি লম্বা রেসের ঘোড়া। দিন দিন দর্শক বাড়বে ছাড়া কমবে না।’ মণিহার হলের কর্ণধার মিঠু বলেন, “ঈদে ‘মনে রেখ’ ছবিটি প্রদর্শন করেছিলাম। আগে থেকেই বুকিং দেওয়া ছিল। কিন্তু পরে ‘জান্নাত’ ছবির প্রশংসা শুনলাম চারদিকে। মাহিও নাকি অসাধারণ অভিনয় করেছেন। তাই সিদ্ধান্ত নিলাম ছবিটি এ সপ্তাহ থেকে মণিহারে প্রদর্শন করার।”

 



মন্তব্য