kalerkantho


সেরা ছবি

জলমানবের প্রেমই হলো সেরা

ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে সোনার সিংহ জিতে শুরু হয়েছিল ‘দ্য শেপ অব ওয়াটার’-এর জয়যাত্রা। গোল্ডেন গ্লোব ঘুরে অস্কারে শেষ হলো সেই যাত্রা

৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



জলমানবের প্রেমই হলো সেরা

নিজের ছেলেবেলায় ১৯৫৪ সালে মুক্তি পাওয়া জ্যাক আরনলেন্ডর ‘ক্রিয়েচার ফ্রম দ্য ব্ল্যাক লেগুন’ দেখেছিলেন গুলেরমো দেল তোরো। নিজের অবচেতন মনে সেটা লালন করে এসেছেন এত দিন। ৯টি ছবি করার পর মনে হলো, এবার সময় হয়েছে ছেলেবেলার ‘দানব’কে ফিরিয়ে আনার। ব্যস, শুরু করলেন ‘দ্য শেপ অব ওয়াটার’-এর কাজ। এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও জলদানবের প্রেম নিয়ে ষাটের দশকের প্রেক্ষাপটে ছবির গল্প। মূল চরিত্র অর্থাৎ পরিচ্ছন্নতাকর্মী এলিজা এসপাসিতোর চরিত্রে প্রথম থেকেই পরিচালকের মাথায় ছিল স্যালির কথা, ‘সে শুধু আমার প্রথম পছন্দই ছিল না, একমাত্র পছন্দও ছিল।’ ছবির ৯৫ শতাংশ শুটিংই হয়েছে স্টুডিওতে। এর মধ্যে টরন্টোর এলজিন থিয়েটারেই হয়েছে বেশ কিছু অংশের শুটিং। মজার ব্যাপার, ২০১৭ সালের টরন্টো ফিল্ম ফেস্টিভালে এই থিয়েটারেই দেখানো হয়েছিল ছবিটি। সমালোচকদের মতে, চিত্রনাট্য, পরিচালনা মিলিয়ে ‘প্যানস লাবেরিন্থ’-এর পর এটাই পরিচালকের সেরা ছবি। আগে অন্য ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পেলেও এবারই প্রথম সেরা ছবির ক্যাটাগরিতে মনোনীত হয়েছিল দেল তোরোর কোনো ছবি। আর প্রথম দানেই বাজিমাত করেছে ‘দ্য শেপ অব ওয়াটার’।



মন্তব্য