kalerkantho


রক অ্যান্ড রোল কিংবদন্তির বিদায়

রংবেরং ডেস্ক   

২০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রক অ্যান্ড রোল কিংবদন্তির বিদায়

১৯২৬ সালে আফ্রো-আমেরিকান পরিবারে তাঁর জন্ম। অন্য কৃষ্ণাঙ্গদের মতো তাঁকেও বড় হতে হয়েছে নানা প্রতিকূলতার মধ্যে। সেসব দ্রোহের আগুন হয়ে ধরা দিয়েছে গানে। হয়ে উঠেছেন ‘রক অ্যান্ড রোল’ ঘরানার কিংবদন্তি। যুক্তরাষ্ট্রের এই মহান শিল্পী চাক বেরি প্রয়াত হলেন গত শনিবার। মিসৌরিতে তাঁর মারা যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে পুলিশ। ৯০ বছর বয়সী এই গায়কের মৃত্যুর কারণ এখনো জানা যায়নি।

বেরি স্কুলে থাকতেই গানের ক্যারিয়ার শুরু করেন। ঘুরে ঘুরে নানা স্থানে কনসার্টের শুরু তখন থেকেই। তবে এক ডাকাতির মামলায় জড়িয়ে কয়েক বছর সংশোধনাগারে থাকেন, ছেদ পড়ে গানে। ক্যারিয়ারজুড়েই অবশ্য এমন নানা ঝামেলায় বাধা পড়েছে গানে। তাতে অবশ্য বেরির কিংবদন্তি হয়ে ওঠা আটকানো যায়নি। ১৯৫৫ সালে ‘মেবিলিন’ দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু, সঙ্গে খ্যাতিরও। ব্যাপক জনপ্রিয় গানটি মানুষের মুখে মুখে ফেরে। গিটারবাদনে অভিনবত্ব আর দ্রুতলয়ের গানের কথার কারণে ‘রক অ্যান্ড রোল’ ঘরানায় স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য তৈরি করেন বেরি। তাঁর সবচেয়ে জনপ্রিয় গানের মধ্যে আছে ‘জনি বি গুডি’, ‘প্রমিজড ল্যান্ড’, ‘ইউ নেভার ক্যান টেল’, ‘সুইট লিটস সিক্সটিন’ ইত্যাদি। সংগীতে অবদানের জন্য ১৯৮৪ সালে গ্র্যামিতে তাঁকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়। ১৯৮৬ সালে নাম যুক্ত করা হয় ‘রক অ্যান্ড রোল হল অব ফেম’-এ।

কিংবদন্তি এই গায়কের মৃত্যুতে শোকে বিহ্বল বিশ্ব সংগীতাঙ্গন। ‘রোলিং স্টোনস’-এর মিক জ্যাগার বলেছেন, বেরির গান না শুনলে তাঁদের হয়তো গাওয়াই হতো না।



মন্তব্য