kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

দিনে ১০ শো!

রংবেরং প্রতিবেদক   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



দিনে ১০ শো!

দ্বিতীয় সপ্তাহেও অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ নিয়ে দর্শকের আগ্রহে ভাটা পড়েনি। প্রথম সপ্তাহে তো অনন্য দিনে সর্বোচ্চ ১০টি প্রদর্শনী করার পরও দর্শক সামলাতে পারেনি ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্স।

সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের এক যুগের ইতিহাসে আর কোনো বাংলা ছবির এক দিনে ১০টি প্রদর্শনী হয়নি। গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ‘মনপুরা’ টানা আট মাস চলেছে, এই ছবি সে রেকর্ডও ছাড়িয়ে যাবে।

দ্বিতীয় সপ্তাহে সিনেপ্লেক্সে দিনে আটটি আর যমুনা ব্লকবাস্টারে সাতটি করে প্রদর্শনী চলছে। তবু টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। প্রেক্ষাগৃহে অগ্রিম টিকিট পেতেও সমস্যা হচ্ছে। আগের দিন সকালেই পরদিনের সব টিকিট বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। রাজধানীর বলাকা সিনেওয়ার্ল্ড, শ্যামলীতেও একই অবস্থা। এ নিয়ে অবশ্য দর্শকদের বিরক্ত হতে দেখা যায়নি। বলাকা সিনেওয়ার্ল্ডের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক দর্শক জানান, ‘টিকিট পাইনি তবু খারাপ লাগছে না। দেশের ছবির এমন রমরমা কাটতি দেখে বরং ভালোই লাগছে। ’ কবি আসাদ চৌধুরী ছবিটি দেখে হল থেকে বেরিয়েছেন। ছবি কেমন দেখলেন? হেসে বললেন, ‘এক্সপেরিমেন্ট করার নামে অন্য রকম কিছু করতে যায়নি অমিতাভ। এটা মূল ধারারই ছবি। ’

‘আয়নাবাজি’ নিয়ে এত মাতামাতি দেখে অভিভূত অমিতাভ রেজা। বলেন, ‘ছবি কত আয় করল, সেটা নিয়ে ভাবছি না। দেশের সব অঞ্চলের মানুষকে ছবিটা দেখাতে চাই। চলচ্চিত্রে আমার যাত্রা শুরু হয়েছে মাত্র, আরো এগিয়ে যেতে চাই। ’


মন্তব্য